এসআই আকবরের পলায়নে কে জড়িত জানা যাবে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১০:০৭ এএম, ২৬ অক্টোবর ২০২০

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হন আহমদের মৃত্যুর একদিন পর থেকেই পলাতক রয়েছেন হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত বন্দর ফাঁড়ির সাবেক ইনচার্জ (সাময়ীক বরখাস্তকৃত) এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া। তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে দাবি করছে পুলিশ।

এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়ার পলায়নের ঘটনায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) কেউ জড়িত কি-না সেটি খতিয়ে দেখতে পুলিশ সদর দফতর থেকে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটির সদস্যরা আজ সোমবার (২৬ অক্টোবর) প্রতিবেদন জমা দেবেন।

গত বুধবার সিলেটে এসে তদন্তকাজ চালান এ কমিটির সদস্যরা। তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করলে এসআই আকবরকে পলায়নে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই হাসান উদ্দিনের সহায়তার বিষয়টি উঠে আসে। এরপর তাকে বরখাস্ত করা হয়।

তদন্ত কমিটির প্রধান পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (ক্রাইম অ্যানালাইসিস) মো. আয়ুব জানান, এসআই আকবর পালিয়ে যাওয়ার সঙ্গে কেউ জড়িত ছিল কি না তা খুঁজে বের করতে কাজ চলছে। তদন্ত প্রায় শেষের দিকে। সোমবার (২৬ অক্টোবর) প্রতিবেদন জমা দিতে পারেন বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ১১ অক্টোবর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতন করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে রায়হানের মৃত্যু হয়।

রায়হান সিলেট নগরের আখালিয়ার নেহারিপাড়ার বিডিআরের হাবিলদার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি নগরের রিকাবিবাজার স্টেডিয়াম মার্কেটে এক চিকিৎসকের চেম্বারে চাকরি করতেন।

এ ঘটনায় ১২ অক্টোবর রাতে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে পুলিশি হেফাজতে মৃত্যু আইনে এসএমপির কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]