ধর্ষিতার হাত কামড়ে পালাল ধর্ষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৫:৪২ এএম, ০২ ডিসেম্বর ২০২০

ময়মনসিংহের নান্দাইলে নানার বাড়িতে যাওয়ার পথে এক স্কুলছাত্রীকে (১৪) তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আকাশ মিয়া নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে।

অভিযুক্ত আকাশ মিয়া ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের কুমড়াশাসন গ্রামের বিল্লার হোসেনের ছেলে।

এ ঘটনায় সোমবার (৩০ নভেম্বর) রাতে ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ধর্ষক আকাশ মিয়াকে আসামি করে নান্দাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) ওই স্কুলছাত্রীকে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এর আগে ২৭ নভেম্বর দিবাগত রাতে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের কুমড়াশাসন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার দুপুরে ওই স্কুলছাত্রী উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে পাশের গ্রামে নানার বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার পথে ধর্ষক আকাশ মিয়া জোরপূর্বক ওই স্কুলছাত্রীকে সিএনজিতে করে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের কুমড়াশাসন গ্রামে নিয়ে যায়।

সেখান থেকে আকাশ মিয়া তার আত্মীয়ের বাড়িতে নিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে চলে যাওয়ার সময় ওই স্কুলছাত্রী আকাশ মিয়াকে জাপটে ধরে চিৎকার দেয়। এ সময় ধর্ষক ছাত্রীর হাতে কামড় দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ছাত্রীর পরিবারকে গ্রাম্য সালিশে বিচারের আশ্বাস দেয়ায় থানায় যেতে পারেননি তারা। স্থানীয়ভাবে বিচার না পেয়ে সোমবার রাতে মামলা করেন কিশোরীর বাবা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নান্দাইল থানার ওসি মোখলেছুর রহমান বলেন, মামলার পর থেকেই ধর্ষক আকাশ মিয়াকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। ওই স্কুলছাত্রীকে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এমআরএম/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]