সিসিক কাউন্সিলরসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০
কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মিথ্যা ও মানহানিকর তথ্য প্রচার করায় কোতোয়ালি থানায় ‘দৈনিক একাত্তরের কথা’ পত্রিকার প্রকাশকের ব্যক্তিগত সহকারী রানা মিয়া বুধবার (২ ডিসেম্বর) রাতে এ মামলা করেন।

মামলার এজহারনামীয় আসামিরা হলেন- সিলেটের বিয়ানীবাজারের দেউলগ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে ও সিসিকের ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম, জকিগঞ্জের মহিদপুর গ্রামের মৃত মাসুকুর রহমানের ছেলে হুমায়ুন রশীদ সুমন ওরফে এইচ আর সুমন, উপশহর এফ ব্লকের ৪নং রোডের কামাল উদ্দিন, জকিগঞ্জের হাসিতলা সোনাসর গ্রামের মৃত কবির মিয়ার ছেলে কাজী জুবায়ের আহমদ ও এহসান আহমদ নামে এক ব্যক্তি।

কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম মিঞা বলেন, কাউন্সিলর সেলিমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রানা মিয়া নামে এক ব্যক্তি মামলা করেছেন। এছাড়াও মামলায় আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, গত রোববার (২৯ নভেম্বর) দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকায় ছালেহ আহমদ সেলিমকে নিয়ে প্রকাশিত ‘ভয়ে চুপ উপশহর’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত সংবাদের জেরে পত্রিকার প্রকাশক নজরুল ইসলাম বাবুল ও সম্পাদক চৌধুরী মমতাজকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার পাশাপাশি ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরণের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য প্রকাশ করা হয়।

ছালেহ আহমদ সেলিম, এইচ আর সুমন, কামাল উদ্দিন, কাজী জুবায়ের, এহসান তাদের ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে অপপ্রচার চালান। এতে তারা পত্রিকাটির প্রকাশক ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে তাদের অশ্লীল সংলাপ, অডিও, ভিজ্যুয়াল চিত্র, ভিডিও প্রকাশ করে তাদের পরিবারের সদস্যদের সম্মান ক্ষুণ্ন করেন। এছাড়াও কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদককে নিয়ে অশ্লীল বক্তব্য দিয়েছেন।

ছামির মাহমুদ/আরএআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]