এক প্রার্থীর জরিমানায় অপরজনের সমর্থকদের উল্লাস, সংঘর্ষে আহত ৩২

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০২:৫৫ এএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৪৬ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েছে পুলিশ। সংঘর্ষে ৭ জন পুলিশ সদস্যসহ আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর অন্তত ৩২ কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছেন। আহত তিন পুলিশ সদস্যকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে উপজেলার লালগঞ্জ বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি পুলিশ সদস্যরা হলেন- সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. সোহেল, কনস্টেবল মো. রাজিব ও জাহিদ হোসেন।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বিকেলে দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করার অভিযোগে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী রুমা সরদারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি জানতে পেরে তার প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী কাজী আব্দুল হালিম মিলন চৌধুরীর কর্মী-সমর্থকরা উল্লাস করেন। রাত ৮টার দিকে লালগঞ্জ বাজারে রুমা সরদারের কয়েকজন কর্মীকে টিটকারি করেন মিলন চৌধুরীর কর্মীরা।

এতে দুপক্ষ বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। খবর পেয়ে দুপক্ষের কর্মী-সমর্থকরা ঘটনাস্থলে আসলে সংঘর্ষ ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ এসে প্রথমে লাঠি চার্জ করে দুপক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে উভয়পক্ষ পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে।

পরে পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শটগানের ৪৬ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়লে উভয়পক্ষের কর্মী সমর্থকরা পালিয়ে যান।

সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর অন্তত ২৫ থেকে ৩০ জন কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছেন। তাছাড়া সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ৭-৮ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি আবিদুর রহমান জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ থামাতে গেলে তারা পুলিশের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করেন। এতে পুলিশের ৭-৮ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শটগানের ৪৬ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়। এরপর পরিস্থিতি শান্ত হয়। এ ঘটনার পর ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৩ পুলিশ সদস্যকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এফআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]