রাজশাহীতে এবার আসামি ধরতে গিয়ে তোপের মুখে পুলিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২১
প্রতীকী ছবি

রাজশাহীতে এবার পরোয়ানাভুক্ত মাদক মামলার আসামি ধরতে গিয়ে তোপের মুখে পড়েছে পুলিশ। আসামির সঙ্গে ঘটেছে হাতাহাতির ঘটনাও। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) বিকালে নগরের চন্দ্রিমা থানার শিরোইল কলোনীর কানার মোড় মহল্লায় এ ঘটনা ঘটেছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) মোটরসাইকেলের কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় হামলার শিকার হন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) একজন ট্রাফিক সার্জেন্ট। গুরুতর আহত সার্জেন্ট বিপুল কিশোর এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনার রেস না কাটতেই রাজশাহীতে ফের তোপের মুখে পড়ল পুলিশ।

যে আসামিকে ধরতে গিয়ে এই ঘটনা তার নাম সানমুন (২৫)। তিনি মাদক কারবারি। দুটি মামলায় তার গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। এর মধ্যে একটি মামলার বিচার শেষে আদালত তার ছয়মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। অন্যটি বিচারাধীন। মামলা দুটি মাদকের বলে জানিয়েছেন চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুম মুনীর।

ওসি বলেন, তিনজন কনস্টেবল নিয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহাবুদ্দিন ফারুক আসামি সানমুনকে গ্রেফতার করতে যান। বাড়িতে পুলিশ গেলে আসামি ছাদ থেকে লাফ দেন। এরপরও পুলিশ তাকে ধরে ফেলতে সক্ষম হয়। এ সময় আসামির বাবা-মা ও ভাইসহ আত্মীয়-স্বজন তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। তখন একটু হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশের একটি ‘ব্যাকআপ টিম’ ঘটনাস্থলে যায়। আমি নিজেও সেখানে ছুটে যাই। এরপর পরিস্থিতি শান্ত করে আসামিকে থানায় আনি।

ওসি সিরাজুম মুনীর জানান, ঘটনার সময় চিকিৎসা নেয়ার মতো কেউ আহত হননি। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]