জয়ন্তী ও আড়িয়ালখাঁ নদীতে বালু উত্তোলন, ঝুঁকিতে হাজারো মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৯:৩৪ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২১

বরিশালের জয়ন্তী ও আড়িয়ালখাঁ নদীতে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে নদীভাঙন আরও তীব্র হচ্ছে। হুমকির মুখে পড়ছে নদীতীরের বাসিন্দাদের বাড়িঘর, বিদ্যালয়, হাট-বাজারসহ বিভিন্ন স্থাপনা।

নদী তীরবর্তী বাসিন্দারা জানান, ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ম্যানেজ করে জয়ন্তী ও আড়িয়ালখাঁ নদীর ১৫টিরও বেশি পয়েন্টে বালু উত্তোলন করছে একটি অসাধু চক্র। বালু উত্তোলন করায় শীতের মৌসুমেও উপজেলার চরকালেখান ইউনিয়নের গলইভাঙ্গা নতুন হাট, নমরহাট, পশ্চিম তেরচর, পশ্চিম চরকালেখান, নন্দীরবাজার, নবাবের হাট লঞ্চঘাটসহ বিভিন্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। নদীর তীরের মাটি নদীতে ধসে যাচ্ছে।

ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে চরলক্ষ্মীপুর ফাজিল মাদরাসা, চরকালেখান ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, তেরচর ভাঙ্গারমোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও হাট-বাজার। নদীর পানি বৃদ্ধি পেলে ভাঙন আরও তীব্র হওয়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

চরকালেখান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. মোহসীন উদ্দীন খান জানান, বালু উত্তোলনের ফলে কিছু বালু ব্যবসায়ী লাভবান হচ্ছেন। কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে গত ১৯ জানুয়ারি দেড় শতাধিক মানুষ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে মুলাদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শুভ্রা দাস জানান, অচিরেই অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাইফ আমীন/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]