পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ১০:৪৬ পিএম, ০৬ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে খুলনার এক পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে। স্বামীর অত্যাচার থেকে বাঁচতে ও জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে খুলনা মহানগর পুলিশ (কেএমপি) কমিশনারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন তার স্ত্রী। অভিযুক্ত পুলিশ পরিদর্শক নাহিদ হাসান মৃধা কেএমপির গোয়েন্দা শাখার ইন্সপেক্টর হিসেবে কর্মরত।

নাহিদের মারধরে আহত হয়ে তার স্ত্রী আঁখি মুনা এখন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি। ২০১৪ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাদের বিয়ে হয়।

চলতি মাসের ২ তারিখ কেএমপি কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ ভুক্তভোগী নারী উল্লেখ করেন, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছেন স্বামী নাহিদ। যৌতুকের দাবি পূরণ করতে গিয়ে তার বাবা সংসারের জন্য সবকিছুই দিয়েছেন। সম্প্রতি জমি কেনার জন্য ১৪ লাখ টাকা দাবি করে প্রতিনিয়তই তাকে মারপিট শুরু করেন। ওই নারীর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের ক্ষত রয়েছে।

আঁখি মুনার অভিযোগ, গত ১ মার্চ রাতে আবারও তাকে মারপিট করেন নাহিদ। একপর্যায়ে ছুরি নিয়ে তাকে খুন করতে উদ্যত হন। এ সময় তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

যেকোনো নিজের এবং একমাত্র সন্তানের প্রাণহানির আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ওই নারী।

মুনার বাবা মনিরুজ্জামান পাইক বলেন, মেয়ের সুখের কথা ভেবে জামাইয়ের সব আবদার পূরণ করেছি। এখন আবার ১৪ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে প্রতিনিয়ত মারপিট করছে মেয়েকে। ১ মার্চ মারপিট করে এবং খুন করার হুমকি দেয়। আমার মেয়ে ২ মার্চ পুলিশ কমিশনারের কাছে আবেদন করেছে এবং ৩ মার্চ সরাসরি কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎ করে। কমিশনার তার শারীরিক অবস্থা দেখে হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। সে অনুযায়ী মেয়ে হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি আছে। ওসিসির মাধ্যমে আমরা আইনের আশ্রয় নেব।

অভিযোগ করে তিনি আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা খালিশপুর থানায় গেলে আমাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে নাহিত। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) সামনেই নাহিদ এমন আচরণ করেন।

এ বিষয়ে ওসিসির দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-পরিদর্শক (এস আই) নীলা জানান, ওই গৃহবধূ ওসিসিতে ভর্তি আছেন। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন আছে। আগামীকাল (রোববার) নিয়ম অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

আলমগীর হান্নান/এসএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]