নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে হুমকি, আ.লীগ নেতার বিষপান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৫:৫২ পিএম, ১৭ মার্চ ২০২১

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সদস্য (মেম্বার) পদ থেকে সরে দাঁড়াতে অনবরত হুমকির কারণে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন হাফিজুর রহমান হওলাদার (৬০) নামের আওয়ামী লীগের এক নেতা।

বুধবার (১৭ মার্চ) সকালে ধুরিয়াল গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা শহরের একটি হসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

হাফিজুর রহমান বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

হাফিজুর রহমান হওলাদারের স্ত্রী ফাতেমা বেগম জানান, গত ৪ মার্চ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। এর আগেই তার স্বামী হাফিজুর রহমান ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেন। তিনি এবার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন শুনে এলাকার অনেক মানুষ বাড়িতে এসে তাকে শুভেচ্ছা জানান। এতে তার (হাফিজুর রহমান) ভগ্নিপতি ও বর্তমান ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার খোকন হাওলাদার ক্ষিপ্ত হন। এরপর থেকেই গত কয়েক দিন ধরে নানাভাবে হমকি দিয়ে আসছিলেন তিনি ও তার অনুসারীরা।

ফাতেমা বেগম আরও জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তার স্বামী হাফিজুর রহমানের প্রার্থী হওয়ার কথা ছিল। তবে ওইসময় খোকন হাওলাদার তার স্বামীকে নির্বাচন না করতে অনুরোধ করেন এবং অঙ্গীকার করেন ওই সময় হাফিজুর রহমান প্রার্থী না হলে আগামী নির্বাচনে খোকন হাওলাদার প্রার্থী হবেন না। তবে খোকন হাওলাদার তার অঙ্গীকার ভঙ্গ করে এবারের নির্বাচনেও প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন। বিষয়টি সমাধানে সোমবার রাতে খোকন হাওলাদারসহ স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে হাফিজুর রহমানের বৈঠক হয়। সেখানে খোকন হাওলাদার তার স্বামীকে মনোনয়ন জমা না দিতে হুমকি দেন। পরবর্তীতে বাড়িতে এসে খোকন হওলাদার বলেন, হাফিজুর রহমান মনোনয়নপত্র জমা দিলেও ভোট করতে দেয়া হবে না। প্রচারণা চালাতে বাধা দেয়া হবে। এমনকি প্রচারণার দিনগুলোতে হাফিজুর রহমানকে তার লোকজন অবরুদ্ধ করে রাখার হুমকি দেন।

‘বর্তমান ইউপি মেম্বার খোকন হাওলাদার ও তার লোকজনের হুমকির ঘটনায় তার স্বামী হাফিজুর রহমান মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। এরপর আজ সকালে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে বাড়িতে থাকা কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজুর রহমানের স্ত্রী ফাতেমা বেগম বলেন, ‘পরিবারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদে স্বামী হাফিজুর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। যত বাধাই আসুক শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাবেন। এ কারণে আজ দুপুরে আমি নিজে গিয়ে স্বামীর হয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে এসেছি।’

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে বার্থী ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য খোকন হাওলাদারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হয়। তবে রিং বাজলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

বার্থী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান প্যাদা বলেন, ‘৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে শুনেছি। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি, মেম্বার পদে প্রার্থী হওয়া নিয়ে হাফিজুর রহমান ও খোকন হাওলাদারের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। তারা দুজন একে অপরের আত্মীয়। তাই বিষয়টি নিজেদের মধ্যে সমাধানের চেষ্টা করা উচিত।’

গৌরনদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তৌহিদুজ্জামান জানান, এ ধরনের কোনো ঘটনা তার জানা নেই। কেউ কোনো অভিযোগও করেননি। লিখিত অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

১১ এপ্রিল প্রথম ধাপে বার্থী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সাইফ আমীন/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]