বাড়ির সবাইকে অজ্ঞান করে চুরি, জ্ঞান ফেরেনি ২৪ ঘণ্টায়ও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০২:০৫ এএম, ২২ মার্চ ২০২১ | আপডেট: ০৫:০৯ এএম, ২২ মার্চ ২০২১

ময়মনসিংহের নান্দাইলে টিনের বেড়া কেটে এক পরিবারের ৫ জনকে অজ্ঞান করে চুরির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২০ মার্চ) দিবাগত রাতে উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের চাঁনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অজ্ঞান হওয়া ব্যক্তিরা হলেন, চাঁনপুর গ্রামের হোসেন আলী (৫৫), তার শ্বাশুড়ি ফিরোজা (৭৫) তার স্ত্রী জমিলা (৪৫), পুত্রবধূ আসমা (৩০), এবং নাতী এয়াসিন (১১)।

ভুক্তভোগী হোসেন আলীর ছেলে মো. সাত্তার বলেন, আমি ঢাকায় কাজ করি। দুপুরের দিকে প্রতিবেশীরা ফোন করে বলে আমার পরিবারের ৫ জনকে অজ্ঞান করে চুরির ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই আমি ঢাকা থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হই। সন্ধ্যার পর বাড়িতে এসে দেখি মা, বাবা, স্ত্রী সন্তান সবাই ঘরের ভিতরে অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে। তাদেরকে কেউ হাসপাতালেও নেয়নি। এমনকি থানাতেও কেউ কোনো খবর দেয়নি।

তিনি আরও বলেন, আমি ঢাকা থেকে ফেরার পর প্রায় ২০ ঘন্টা আমার মায়ের জ্ঞান কিছুটা ফিরলেও এখনও বাকি চারজন অজ্ঞান হয়ে আছেন। সোমবার (২২ মার্চ) সকালে হাসপাতালে নিয়ে যাব।

কিছুটা জ্ঞান ফিরলে হোসেন আলীর স্ত্রী জমিলা জানান, রাতের বেলা ঘুমের পর কি হয়েছে, তিনি বলতে পারছেন না। তবে তার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন নেই।

নান্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান আকন্দ বলেন, বিষয়টি কেউ থানায় এখন পর্যন্ত জানায়নি। তবে খোঁজ নেয়ার জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হবে।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]