সংসার করতে স্ত্রীর অস্বীকৃতি, গায়ে কেরোসিন ঢেলে স্বামীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৭:৩৬ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০২১
প্রতীকী ছবি

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় স্ত্রী সংসার করতে অস্বীকৃতি জানানোয় গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছেন সাগর ফকির (২৫) নামের এক ব্যক্তি।

সোমবার (১২ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে নিবিড় পরিচর্যা (আইসিইউ) কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মারা যাওয়া সাগর ফকির উপজেলার বাকাল গ্রামের ভ্যানচালক লিয়াকত ফকিরের ছেলে। তিনি দুই কন্যা সন্তানের জনক ছিলেন।

সাগরের বাবা লিয়াকত ফকির জানান, কয়েকমাস ধরে ছেলে সাগরের সঙ্গে তার স্ত্রী রাশিদার দাম্পত্য কলহ চলছিল। একপর্যায়ে মাসখানেক আগে ঝগড়া করে রাশিদা তার দুই মেয়েকে নিয়ে মাদারীপুরের টেকেরেহাটে তার বাবার বাড়ি চলে যান। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে সাগর তার স্ত্রী রাশিদাকে ফোন করে সন্তানদের নিয়ে ফিরে আসতে অনুরোধ জানান। তবে ফিরে আসবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন রাশিদা। এতে সাগর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। কিছুক্ষণ পর ঘরের দরজা বন্ধ করে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে সাগরের মা আমেনা বেগম ও চাচাতো ভাই রমজান ফকিরও অগ্নিদগ্ধ হন। তাদের উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকেরা সাগরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই দিনই ঢাকায় পাঠান। আগৈলঝাড়া উপজেলা হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রোববার বিকেলে রমজান ফকিরকে ঢাকায় পাঠানো হয়। আহত সাগরের মা আমেনা বেগম উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

লিয়াকত ফকির বলেন, ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা (আইসিইউ) কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার বেলা ১১টার দিকে সাগরের মৃত্যু হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বখতিয়ার আল মামুন সাগরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাইফ আমীন/এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]