স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখে স্বামী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৮:২৭ পিএম, ১৪ এপ্রিল ২০২১
প্রতীকী ছবি

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় গৃহবধূ কুলসুমকে (২০) গলা টিপে হত্যা করে গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার কাহালগাঁও দক্ষিণপাড়া গ্রামের একটি লেবু বাগান থেকে ওই নারী ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় স্বামী হাসান মিয়াকে (২৫) গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার হাসান দক্ষিণপাড়া গ্রামের মো. আব্দুল হামিদের ছেলে। তাদের সংসারে ৪২ দিন বয়সী এক ছেলে শিশু রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় দুই বছর আগে হাসান আলীর সঙ্গে কুলসুম আক্তারের বিয়ে হয়। গত প্রায় এক বছর যাবত যৌতুকসহ নানা বিষয়ে কুলসুমকে তার বাবার বাড়িতে যেতে দেয়নি হাসান। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বাবার বাড়ি থেকে কুলসুমের ভাবি তাকে নিতে হাসানের বাড়িতে গেলেও তারা যেতে দেয়নি। এ নিয়ে রাতে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়।

বুধবার সকালে বাড়ির পাশে লেবু বাগানে ঝুলন্ত অবস্থায় কুলসুমের মরদেহ দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ ঘটনায় কুলসুমের ভাই রফিকুল ইসলাম ফুলবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফুলবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিজুর রহমান বলেন, গৃহবধূ কুলসুম আক্তারকে গলাটিপে হত্যা করে বাড়ির পাশের লেবুর বাগানে ঝুলিয়ে রাখে। নিহতের গলায় আঙ্গুলের চিহ্ন ও বুকে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) মরদেহ ময়নাতদন্ত করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

তিনি আরও বলেন, মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হলেও কুলসুমের পা হাঁটু পর্যন্ত মাটিতে লেগে ছিল। এ ঘটনায় স্বামী হাসান মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]