সেফহোমে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ১২:২৫ এএম, ০৬ মে ২০২১

রাজশাহীর পবায় মহিলা ও শিশু-কিশোরী নিরাপদ হেফাজতিদের আবাসনে (সেফহোম) থাকা এক অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৪ মে) রাতে মারা যান তিনি।

জানা গেছে, প্রায় ৫৫ বছর বয়সী ওই নারী ২০১২ সাল থেকে সেফ হোমে ছিলেন। তার পরিচয় পায়নি কর্তৃপক্ষ। পরিচয় না পাওয়ায় সেফহোম কর্তৃপক্ষ ওই নারীর নাম রেখেছিল জুলেখা।

সেফহোমের তত্ত্বাবধায়ক লাইজু রাজ্জাক মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ২০১২ সালে সিরাজগঞ্জ থেকে এই নারীকে উদ্ধার করে সেফহোমে পাঠানো হয়। তিনি অসুস্থ ছিলেন।

তিনি আরও জানান, জুলেখার মানসিক সমস্যা ছিল। পাবনা মানসিক হাসপাতালে নিয়ে একাধিকবার চিকিৎসা করানো হয়। এছাড়া তার পিত্তথলিতে পাথর ছিল। পিত্তনালিতে ছিল টিউমার। কিছুদিন ধরে জণ্ডিসেও ভুগছিলেন। মাস তিনেক আগে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানো হয়।

তত্ত্ববধায়ক লাইজুর ভাষ্য, করোনার কারণে তার উন্নত চিকিৎসা করানো সম্ভব হয়নি। এতে মঙ্গলবার শেষ রাতের দিকে তিনি গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর রামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।ওই নারীর পরিচয় না পাওয়া গেলে আঞ্জুমানে মফিদুলের মাধ্যমে দাফন করা হবে বলেও জানান তত্ত্বাবধায়ক লাইজু রাজ্জাক।

এদিকে রামেক কর্তৃপক্ষ বলছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিনি।মরদেহ রামেক হাসপাতালের হিমঘরে রয়েছে। মরদেহের ময়নাতদন্ত হবে।

ফয়সাল আহমেদ/এএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]