হত্যা মামলার বাদীর ওপর হামলা, পৌর যুবলীগ সভাপতিসহ আটক ৪

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০২:২২ এএম, ০৭ মে ২০২১ | আপডেট: ০২:৩১ এএম, ০৭ মে ২০২১

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান ওরফে শুভ্র হত্যা মামলার বাদী আবিদুর রহমান প্রান্তের ওপর হামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পৌর যুবলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান মিথুনসহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। গৌরীপুর থানার ওসি হালিম সিদ্দিকী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তবে, কাউকে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন তিনি।

এর আগে গত বুধবার দুপুরে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যার ঘটনায় পৌর মেয়র রফিকুল ইসলামসহ ১৯ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট জমা পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর রাত সাড়ে ১০টার দিকে গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান শুভ্রকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় গত ১৯ অক্টোবর ১৪ জনের নাম উল্লেখসহ মোট ২২ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের ছোট ভাই আবিদুর রহমান প্রান্ত। মামলার তদন্তে আরও পাঁচজনের সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় তাদেরও মামলার আসামি করা হয়েছে।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামের পরিকল্পনায় আসামিরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটান। ২০১৭ সালের ৫ এপ্রিল সৈয়দ রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন নিহত মাসুদুর রহমান শুভ্র।

এদিকে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম জামিন নিয়ে গত ৩০ জানুয়ারি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে হারিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো গৌরীপুর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন।

এ মামলার প্রধান আসামি চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি গৌরীপুর উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]