দেশি মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ১০০ টাকা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৭:৩৮ পিএম, ১৩ মে ২০২১ | আপডেট: ০৭:৪০ পিএম, ১৩ মে ২০২১

ঈদকে সামনে রেখে ময়মনসিংহে দেশি মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ১০০-১২০ টাকা।এছাড়া বেড়েছে গরুর মাংসের দামও। গরুর মাংস কেজিপ্রতি বেড়েছে ৩০-৫০ টাকা। এছাড়া সোনালী মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ৪০-৫০ টাকা।

ক্রেতারা বলছেন, ক্রেতা বেশি দেখে মাংসের দাম বাড়িয়েছে ব্যবসায়ীরা। তবে বিক্রেতারা বলছেন, ঈদ উপলক্ষে দাম কিছুটা বেড়েছে।

jagonews24

বৃহস্পতিবার (১৩ মে) বিকালে ময়মনসিংহ নগরীর মেছুয়াবাজার ও শম্ভুগঞ্জ বাজারে ঘুরে এ তথ্য জানা গেছে।

মেছুয়াবাজারের গরুর মাংস বিক্রেতা মগুল হোসেন বলেন, কাল ঈদ, ক্রেতার চাপ বেশি। তাই দামও কিছুটা বেড়েছে।

jagonews24

তিনি বলেন, গরুর মাংস ৬০০ টাকা কেজি, খাশি ৮০০-৮৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

ওই বাজারের মুরগি বিক্রেতা রফিকুল ইসলাম বলেন, ব্রয়লার মুরগি ১৪০-১৫০ টাকা কেজি, কক ২৪০-২৬০, দেশি মুরগি ৫০০-৫৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

jagonews24

তবে শম্ভুগঞ্জ বাজারে দামের কিছুটা পার্থক্য দেখা গেছে। শম্ভুগঞ্জে বাজারে দেশি মুরগি ৪৫০-৫০০ টাকা কেজি বিক্রি হলেও মেছুয়াবাজারে বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৫৫০ টাকায়। অথচ গত কয়েকদিন আগেও উভয় বাজারে দেশি মুরগি ৪০০-৪৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে।

শম্ভুগঞ্জ বাজারে খাসির মাংস ৮০০ টাকায় বিক্রি হলেও মেছুয়াবাজারে বিক্রি হচ্ছে হচ্ছে ৮২০- ৮৫০ টাকায়।

jagonews24

শম্ভুগঞ্জ বাজারের গরুর মাংস বিক্রেতা মজিবুর রহমান বলেন, ঈদে ক্রেতার চাপ বেশি, তাই দাম কিছুটা বেড়েছে। গরুর মাংস একদাম ৮০০ টাকা কেজি দামে বিক্রি হচ্ছে। খাসির মাংস ৮০০ টাকা।

ওই বাজারের খাসির মাংস বিক্রেতা আব্দুর রশিদ বলেন, খাসির মাংস ৮০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি। তবে শুনছি শহরে খাসির মাংস ৮৫০ টাকা দামেও বিক্রি হচ্ছে।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]