ভূমিকম্পের কারণ উদ্ঘাটনে সিলেটে খনিজ সম্পদ বিভাগের বিশেষজ্ঞ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৫:০০ পিএম, ১৩ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

সিলেটে সাত দফা ভূমিকম্পের কারণ অনুসন্ধানে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় গঠিত পাঁচ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল সিলেটে পৌঁছেছে। এসময় তারা সিলেটের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

রোববার (১৩ জুন) সকালে সিলেট আবহাওয়া ও ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন তারা।

এরপর সিলেটের গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রগুলো থেকে ভূমিকম্পের সৃষ্টি কি-না সে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে সিলেটের বিভিন্ন গ্যাস কূপ পরিদর্শন করেন তারা। অনুসন্ধান কার্যক্রম শেষে বিশেষজ্ঞ দলটি ঢাকায় ফিরে যাবে।

জানা যায়, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্প্রতি বিশেষজ্ঞদের নিয়ে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে। পেট্রোবাংলার পরিচালক (প্রোডাক্ট শেয়ারিং কন্ট্রাক্ট) প্রকৌশলী মো. শাহীনুর ইসলামের নেতৃত্বে এ কমিটিতে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দুজন অধ্যাপক এবং বাপেক্স ও পেট্রোবাংলার আরও দুই কর্মকর্তা।

সিলেট আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী জানান, ভূমিকম্পের কারণ উদ্ঘাটন করতে বাপেক্সে ও পেট্রোবাংলার কয়েকজন কর্মকর্তা আবহাওয়া অফিস পরিদর্শন করেছেন। এসময় আবহাওয়া অফিসে ভূমিকম্পের রেকর্ড করা তথ্য যাচাই-বাছাই করেন তারা।

এছাড়া বিশেষজ্ঞ দলের সদস্যরা সিলেটের হরিপুর, গোলাপগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেছেন। প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন ক্ষেত্র থেকে ভূমিকম্প হচ্ছে কি-না সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখছেন তারা।

উল্লেখ্য, সিলেটে আটদিনের ব্যবধানে সাত দফায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এরমধ্যে গত ২৯ মে সিলেটে ১৮ ঘণ্টার মধ্যে সর্বোচ্চ পাঁচবার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। তবে সরকারি হিসেবে চারবার ভূমিকম্প রেকর্ড করা হয়েছে। যার উৎপত্তিস্থল সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা। তার ঠিক ১০ দিনের মাথায় গত ৭ জুন সন্ধ্যায় এক মিনিটের ব্যবধানে ফের পরপর দুইবার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠে সিলেট। যার উৎপত্তিস্থল সিলেটের দক্ষিণ সুরমার জালালপুর।

ছামির মাহমুদ।/এসএমএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]