বিয়ের বাজারের কথা বলে তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১২:০৯ এএম, ১৬ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৬:১১ পিএম, ১৬ জুন ২০২১
প্রতীকী ছবি

বিয়ের বাজার করার কথা বলে এক তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার রাত ১০টার দিকে সিলেট মহানগরে এ ঘটনা ঘটে। এতে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) মিডিয়া শাখা থেকে এ সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, তিন দিন আগে জালালাবাদ থানার ইসলামপুর মানসিনগর গ্রামের কাপ্তান মিয়ার ছেলে তাজউদ্দিনের (২২) সঙ্গে মোবাইলে পরিচয় হয় ওই তরুণীর। এরপর তাদের প্রেম হয়। একপর্যায়ে ওই তরুণীকে বিয়ের আশ্বাস দেন তাজউদ্দিন। এরপর গত সোমবার রাতে বিয়ের বাজার করবে বলে বাড়ি থেকে তরুণীকে বের হতে বলেন।

কথামতো ওই তরুণী বাড়ি থেকে বের হয়ে তাজউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন। পরে তাজউদ্দিন তাকে নিয়ে সিএনজি অটোরিকশায় রওনা দেন। এরপর দুই সহযোগীকে নিয়ে অটোরিকশার ভেতরেই ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন তাজউদ্দিন। সহযোগী দুজন হলেন জালালাবাদ থানার ইসলামপুর মানসিনগর গ্রামের রজন মিয়ার ছেলে এখলাছুর রহমান (২৭) ও একই থানার নলকট গ্রামের ফুল মিয়াও (২৭)।

jagonews24

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি আরও বলা হয়, ঘটনার পর ভিকটিমকে সিলেট নগরীর দিকে নিয়ে আসলে তরুণীর কান্না শুনে স্থানীয়রা সিএনজি অটোরিকশাকে আটক করে। পরে ঘটনা শুনে তাজউদ্দিন ও এখলাছুর রহমানকে আটকে রাখে স্থানীয়রা। তবে অটোরিকশাচালক ফুল মিয়া পালিয়ে যান।

খবর পেয়ে জালালাবাদ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার এবং তাজউদ্দিন ও এখলাছুর রহমানকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ওই তরুণী জালালাবাদ থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাজমুল হুদা খান বলেন, ভিকটিমকে চিকিৎসার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ছামির মাহমুদ/জেডএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]