বরিশালে ১০ বিদ্রোহী প্রার্থীসহ আ.লীগের ১৯ নেতাকর্মী বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১০:০৯ পিএম, ১৯ জুন ২০২১ | আপডেট: ১০:১০ পিএম, ১৯ জুন ২০২১

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে চেয়ারম্যান পদে ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হওয়ায় বরিশাল জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের ১০ আওয়ামী লীগ নেতা ও তাদের পক্ষে কাজ করার অপরাধে আরও ৯ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শনিবার (১৯ জুন) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

বহিষ্কৃত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক পণ্ডিত শাহাবুদ্দিন ও ফারুক সরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মাস্টার নাসির উদ্দিন হাওলাদার, হরিণাথপুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান সিকদার, মুলাদী উপজেলার বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম মুন্সী, সদস্য মজিবুর রহমান শরীফ, ইঞ্জিনিয়ার ইউসুফ আলী, বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তাজেম আলী হাওলাদার, বরিশাল সদর উপজেলার কাশীপুর ইউনিয়নের সভাপতি নুরুল ইসলাম ও চরবাড়িয়া ইউনিয়নের সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম।

অন্যদিকে বহিষ্কৃত নেতারা হলেন- বাবুগঞ্জ উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম মীর, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা মনির খান, ইসমাইল বেপারী, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুর রব বেপারী, জেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনায়েত হোসেন পান্না, বাকেরগঞ্জ উপজেলার দাড়িয়াল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাছের আহমেদ বাচ্চু, গারুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন তালুকদার মিন্টু ও কলসকাঠী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম তালুকদার।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রথম ধাপে ২১ জুন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে যারা আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন তাদের বিপক্ষে প্রার্থী হয়েছেন, এমন জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের ১০ আওয়ামী লীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় অংশ নেয়ার অভিযোগে বাকি ৯ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এই মুহূর্ত থেকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে বহিষ্কৃত নেতাকর্মীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এখন থেকে আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী তাদের সঙ্গে সম্পর্ক বা সম্পৃক্ততা রাখলে তাদেরকেও সাংগঠনিক পদ থেকে বহিষ্কার করা হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিভিন্ন পর্যায়ের ১৯ নেতাকর্মীকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জেলা আওয়ামী লীগের। যারা সংগঠনের সিদ্ধান্ত না মেনে বিদ্রোহীদের পক্ষে কাজ করবেন তাদের বিরুদ্ধে দলীয়ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাইফ আমীন/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]