বরিশালে দূরপাল্লাসহ সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১১:৪৪ এএম, ১৬ জুলাই ২০২১

 

বাস টার্মিনাল নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জেরে বরিশালে দূরপাল্লাসহ সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিকরা। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছেন রোগীসহ ঈদে বাড়ি ফেরা হাজার হাজার মানুষ।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সদ্য গঠিত কমিটির সভাপতি পরিমল চন্দ্র দাস এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, সকাল ১০ টার দিকে নগরীর নথুল্লাবাদ ও রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সকালে নগরীর রূপাতলী বাস টার্মিনাল নিয়ন্ত্রণ নিয়ে শ্রমিকদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। এরপর রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা ও খুলনাসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৭ টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। উভয় পক্ষের সঙ্গে বৈঠক শেষে বাস চলাচল শুরু হয়। একপক্ষ মামলা দিয়ে আসামিদের গ্রেফতারে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেন। কেউ গ্রেফতার না হওয়ায় ওই পক্ষ ফের বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন।

jagonews24

উভয় পক্ষের কয়েকজন পরিবহন শ্রমিকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দুই দশকের বেশি সময় ধরে রূপাতলী বাস টার্মিনালটি নিয়ন্ত্রণ করে আসছে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ। দুইমাস আগে মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাসকে সভাপতি ও টেম্পো মালিক সমিতির সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহমেদ শাহরিয়ার বাবুকে সাধারণ সম্পাদক করে পৃথক একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকেই টার্মিনালের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দুপক্ষই মুখোমুখি অবস্থানে ছিলেন।
মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সদ্য গঠিত পরিমল দাস দাস ও আহমেদ শাহরিয়ার বাবুর নেতৃত্বাধীন গ্রুপ টার্মিনাল নিয়ন্ত্রণ নেয়ার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে সেখানে অবস্থান নেন। এসময় সুলতান মাহমুদ নেতৃত্বাধীন গ্রুপ তাদের বাধা দিলে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এসময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন।

শ্রমিক নেতা সুলতান মাহমুদ জানান, পরিমল চন্দ্র দাস ও আহমেদ শাহরিয়ার বাবুর নেতৃত্বে গঠিত কমিটিকে সাধারণ শ্রমিকরা মেনে নেননি। ওই কমিটি বাইরের লোকজন নিয়ে করা হয়েছে। টার্মিনালের সাধারণ শ্রমিকরা ওই কমিটিতে নেই।

তবে মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সদ্য গঠিত কমিটির সভাপতি পরিমল চন্দ্র দাস বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে তার কমিটির লোকজন টার্মিনালে বাসে যাত্রী উঠানোর কাজ শুরু করলে অতর্কিতভাবে সুলতান মাহমুদের ২০ থেকে ২৫ জন লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করে বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাসির মৃধা, লাইন সম্পাদক মো. হানানসহ পাঁচজনকে আহত করেছেন।

এ ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার বাবু বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলায় হামলায় নেতৃত্ব দেয়া সুলতান মাহমুদ মোল্লাসহ আরও ১২ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।

jagonews24

নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল কেন্দ্রিক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ হোসেন জানান, রূপাতলী টার্মিনালের শ্রমিকদের দাবির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে নথুল্লাবাদ টার্মিনালের মালিক-শ্রমিকরা সকাল ১০টা থেকে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন।

বরিশাল-পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন জানান, সুলতান মাহমুদের লোকজনের অতর্কিত হামলায় বাস মালিক সমিতির তিন নেতাসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। এ কারণে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে শ্রমিকদের কর্মসূচিতে সমর্থন জানিয়েছেন বরিশাল-পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

বরিশাল জেলা বাস মালিক গ্রুপের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার দে জানান, হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে শ্রমিকদের কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন জেলা বাস মালিক গ্রুপ নেতৃবৃন্দ। হামলাকারীরা গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত নথুল্লাবাদ থেকে অভ্যন্তরীণসহ দূরপাল্লার সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ বিষয়ে কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম জানান, পরিবহন শ্রমিকদের দুপক্ষের মধ্যে মারামরির ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। বাস চালুর জন্য আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আশাকরি যাত্রীদের দুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে তারা বাস চলাচল চালু করবেন।

সাইফ আমীন/আরএইচ/জিকেএস

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]