রাজশাহীতে মসজিদে ইমাম রাখা না রাখা নিয়ে সংঘর্ষ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৫:৪৬ এএম, ৩১ জুলাই ২০২১

রাজশাহী নগরীর পাঠানপাড়া জামে মসজিদে ঈমাম রাখা না রাখাকে কেন্দ্র করে মুসল্লিদের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) জুমার নামাজের পর নগরীর পাঠানপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

স্থানীয় মুসল্লিরা বলছেন, পাঠানপাড়া জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আবজাল হোসেন ও তার অনুসারীরা ওই মসজিদের বর্তমান ঈমাম মাওলানা আতিককে রাখতে চান না। কিন্তু মসজিদের সাধারণ মুসল্লিরা চান ওই ঈমামকে রাখতে। এনিয়েই মূলত দ্বন্দ্ব। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাদ জুমা মসজিদের মুসল্লিরা দুভাগে বিভক্ত হয়ে নিজেদের মধ্যে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

jagonews24

তারা আরও জানান, প্রথমদিকে তর্ক ও হাতাহাতি থেকে একপর্যায়ে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। এতে দুইপক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকজন আহত হন। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত হলে ঘটনাস্থল থেকে সবাই পালিয়ে যান।

ঘটনাটি সম্পর্কে জানতে জাগো নিউজের প্রতিবেদক মসজিদ কমিটির সভাপতি আবজাল হোসেনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। কিন্তু তার মুঠোফোন নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

jagonews24

এদিকে, ঘটনাটি নিশ্চিত করে বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, ‘মসজিদের ঈমামকে দায়িত্বে রাখা না রাখাকে কেন্দ্র করে মুসল্লিদের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। পরে পুলিশ ও নগরীতে টহলরত সেনাবাহিনীর সদস্যরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরবর্তীতে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

ফয়সাল আহমেদ/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]