ময়মনসিংহে স্ত্রীর পাহারায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ১১:০০ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

ময়মনসিংহে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে হোসেন আলী (৫০) নামের এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। রোববার (১৯) রাতে নগরীর কৃষ্টপুর এলাকা থেকে র‍্যাব-১৪ তাকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালি মডেল থানায় সোপর্দ করে।

গ্রেফতার হোসেন আলী জাতীয় পার্টির সহযোগী সংগঠন ময়মনসিংহ জেলা জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নগরীর কৃষ্টপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকার সুবাদে হোসেন আলী প্রায়ই কিশোরীর বাসায় আসা-যাওয়া করতেন। এ সময় কিশোরীর সঙ্গে তার কথাবার্তা হতো। চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি সকালে হোসন আলীর তৃতীয় স্ত্রী তামান্না বেগম কিশোরীকে তাদের ঘরে ডেকে নেন। পরে পরিকল্পিতভাবে সেভেন আপের সঙ্গে নেশাজাতীয় ওষুধ সেবন করান। এতে কিশোরী অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে ধর্ষণ করে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে হোসেন আলী। পরের দিন সকালে আবারও তামান্না বেগম কিশোরীকে ডেকে নেন এবং স্বামীকে দিয়ে ধর্ষণ করান। এ সময় তিনি ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে বাইরে বসে পাহারা দিচ্ছিলেন।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, ধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ওই কিশোরীকে টানা পাঁচ মাস ধর্ষণ করেন হোসেন আলী। পরে মেয়েটি সব ঘটনা তার মাকে খুলে বললে মান-সম্মানের ভয়ে তারা ভাড়া বাসা ছেড়ে অন‍্যত্র চলে যান। কিন্তু হোসেন আলী সেখানেও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের নিয়ে এলাকায় মহড়া দিয়ে কিশোরীকে অপহরণ করে হত‍্যার হুমকি দেন। এ ঘটনায় রোববার ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে হোসেন আলী ও তার তৃতীয় স্ত্রী তামান্না বেগমকে আসামি করে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, অভিযুক্ত হোসেন আলীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]