চোখে লাইট মারার দ্বন্দ্বে নৈশপ্রহরী খুন, সহকর্মী গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ১০:০৮ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

ময়মনসিংহের ভালুকায় চোখে টর্চলাইট মারাকে কেন্দ্র করে মাসুদ মীর (৩৫) নামের এক নৈশপ্রহরীকে পিটিয়ে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শিশির সাংমা (৫০) নামের নিহতের একজন সহকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ভোর ৪টার দিকে উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের পাড়াগাঁও গ্রামের রানার অটোমোটরস লিমিটেডে কারখানায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মাসুদ মীর নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার গন্ডা গ্রামের মৃত সাদে আব্বাস মীরের ছেলে। গ্রেফতার শিশির সাংমা একই জেলার দুর্গাপুর উপজেলার নয়াপাড়া গ্রামের মৃত আগনেস সাংমার ছেলে।

ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতার শিশির সাংমাকে শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) আদালতে পাঠানো হবে।

পুলিশ জানায়, ঘটনার দিন মধ্যরাতে মাসুদ মীর ডিউটিতে ছিলেন। এ সময় অপর নৈশপ্রহরী শিশির সাংমা হঠাৎ মাসুদের গায়ে টর্চলাইটের আলো মারেন। এ নিয়ে দুজনের কথা-কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে শিশির সাংমা মাসুদ মিয়াকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে পাশের একটি পানির গর্তে ফেলে দেন। ভোর ৪টার দিকে অন্যান্য সহকর্মীরা বিষয়টি টের পেয়ে মাসুদ মীরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গর্ত থেকে তুলে ক্যান্টিনে নিয়ে গেলে তিনি মারা যান। পরে শিল্প পুলিশকে খবর দিলে তারা মরদেহ উদ্ধার করে ভালুকা মডেল থানায় হস্তান্তর করেন।

এ ঘটনায় ওইদিন বিকেলে নিহতের ভাই বিল্লাল মীর বাদী হয়ে ভালুকা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]