বরিশালে বিএনপির মিলাদ মাহফিলে হামলা-তবারক ছিনতাইয়ের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১০:০৮ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে মিলাদ মাহফিলে বাধা, হামলা ও তবারক ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিএনপি নেতাদের দাবি, সরকারদলীয় নেতাকর্মীদের হামলায় তাদের অন্তত আটজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে বিএনপির নেতারা অভিযোগ করেন।

গৌরনদ উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক বদিউজ্জামান মিন্টু জানান, কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মসজিদে বিএনপির পক্ষ থেকে বাদ আসর মিলাদের আয়োজন করা হয়। তবে মিলাদে অংশ নিতে আসা বিএনপির নেতাকর্মীদের বাধা দেন সরকারদলীয় নেতাকর্মীরা। এসময় বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানো হয়। হামলায় গৌরনদী বাসস্টাণ্ডের দোকানের এক কর্মচারীর মাথা ফেটে যায়। তাকে রক্ষা করতে গিয়ে তিনি হামলার শিকার হন।

তিনি আরও বলেন, উপজেলার আশোকাঠি মোল্লা বাড়ি মসজিদে জুমার নামাজ শেষে মিলাদে বাধা ও ও তবারক ছিতাইয়ের ঘটনা ঘটে। গৌরনদী পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সেলিমকে মারধর করা হয়। এছাড়া গৌরনদী পৌর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আকবর ও গৌরনদী কলেজের সাবেক জি এস সোহাগের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

গৌরনদী পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরীফ জহির সাজ্জাদ হান্নান বলেন, সন্ধ্যার পরও গৌরনদীর বিভিন্ন স্থানে সরকারদলীয় লোকজন বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানোর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

হামলার অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরমেয়র হারিছুর রহমান হারিছসহ কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তবে তারা কল রিসিভ করেননি।

গৌরনদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আফজাল হোসেন বলেন, হামলা বা মারধরের কোনো ঘটনা তার জানা নেই। কেউ মৌখিকভাবেও অভিযোগ করেননি। লিখিতি অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সাইফ আমীন/এসআর

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]