মনোনয়ন পাওয়ার দিনই আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে মামলা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০৪:৪২ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

ঢাকার সাভার উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে জাল দলিল করে জমি বিক্রির অভিযোগে মামলা হয়েছে। মনোনয়নের দিনই তার বিরুদ্ধে এ মামলা হয়।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইনটেলিজেন্স) মাকারিয়াস দাস।

এর আগে ৫ ডিসেম্বর আদালতের নির্দেশে সাভার মডেল থানায় মামলাটি রুজু হয়। একই দিনে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে চেয়ারম্যান পদে আবারও সাইদুর রহমান সুজনের মনোনয়নের বিষয়টি জানানো হয়।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উন্নয়ন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমানের করা এ মামলায় বাকি আসামিরা হলেন- একই ইউনিয়নের মৃত আনন্দময়ী কর্মকারের ছেলে মধুসূদন কর্মকার, মৃত আতাউল্লাহ মাতবরের ছেলে মিরাজ মিয়া, মৃত জনাব আলী খানের ছেলে ওয়াজ উদ্দিন খান, মঙ্গল মন্ডলের ছেলে পলাশ মন্ডল ও মধুসূদন কর্মকারের ছেলে লিপন কর্মকার।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মুজিবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৭২ সালে মধুসূদন বিরুলিয়া ব্রিজ সংলগ্ন ১৩০ দশমিক ৪ শতাংশ জায়গা বিক্রি করে দেন। যারা জমিটি ক্রয় করেছিলেন আমরা তাদের কাছ থেকে কিনে নেই। কিন্তু ২০১৭ সালে মধুসূদন, সাইদুর রহমান সুজন চেয়ারম্যানসহ কয়েকজন জালিয়াতি করে আবার জমিটি আরেক জনের কাছে বিক্রি করে দেন। বিষয়টি জানতে পেরে আমরা আদালতে মামলা করি। বিষয়টি আদালত আমলে নিয়ে থানায় মামলা রেকর্ডের নির্দেশ দেন। পরে ৫ ডিসেম্বর ছয় জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সুজন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এর আগেও এমন অনেক অভিযোগ আছে। এমনকি একটি মামলায় তিনি জেলও খেটেছেন।

অভিযুক্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী সুজন বলেন, আমি একজন রাজনৈতিক ব্যক্তি। আমার বিরুদ্ধে ১০-১৫টা মামলা থাকতেই পারে এতে নির্বাচন করতে কোনো বাধা নেই। কারণ আমি কোনো মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি না। আপনারা শুনেন নাই জেল হাজতে থেকেও তো মানুষ নির্বাচিত হয়েছে আর আমার অপরাধ তো এখনো প্রমাণই হয়নি।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইনটেলিজেন্স) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাকারিয়াস দাস বলেন, জমি জালিয়াতি করে বিক্রির বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]