বরিশালে অটোচালক হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরিশাল
প্রকাশিত: ০৩:৫৫ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২২
ফাইল ছবি

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় অটোচালক রুমান হোসেনকে হত্যার দায়ে আসলাম তালুকদার মিজান নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে বরিশাল জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক টি এম মুসা আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। পরে আসলাম তালুকদারকে কঠোর পুলিশ পাহারায় বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট লস্কর নুরুল হক জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নিজাম তালুকদার অসচ্ছল হওয়ায় রোমানের অটোরিকশা ছিনতাইয়ে পরিকল্পনা করেন। এরপর পরিকল্পনামতো রোমানকে তার শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানান। রোমান রাজি হন।

২০২০ সালের ২৯ জুন রাতে নিজাম অটোরিকশাচালক রোমানকে নিয়ে তার শ্বশুরবাড়ি বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুধল ইউনিয়নের পিকেপি স্কুল সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে যান। এ সময় অটোতে নিজাম, তার স্ত্রী খাদিজা ও শাশুড়ি শাহিদা বেগমও ছিলেন। শ্বশুরবাড়ির অদূরে অটো থামানো হয়। রোমানকে নিয়ে রাঙ্গামাটি নদীর কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর সুযোগ বুঝে বড় ছুরি দিয়ে রোমানকে গলা কেটে নদীতে ফেলে দেওয়া হয়।

এদিকে অটোসহ চালক নিখোঁজের ঘটনায় ওই বছরের ১০ জুলাই মালিক সাইফুল ইসলাম রিফাত বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। পরবর্তীতে আসলাম ও তার স্ত্রী খাদিজা গ্রেফতার হওয়ার পর ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে হত্যার কথা স্বীকার করেন। পরবর্তীতে বাকেরগঞ্জ থেকে জবাই করা ছুরি এবং রঙ পরিবর্তিত অবস্থায় অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই শাহ জালাল মল্লিক ২০২১ সালের ৩১ মে নিজাম ও খাদিজাকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ২৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় নিজামকে মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত।

অন্যদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় নিজামের স্ত্রী খাদিজা বেগমকে খালাস দেওয়া হয়।

সাইফ আমীন/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]