সাহসী সার্জেন্ট রেকসোনাকে সম্মাননা দিলো কেএমপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০৯:১৯ এএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২২

সাহসী ভুমিকা রেখে অস্ত্র ও গুলিসহ সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারে সহযোগিতার জন্য খুলনার সেই ট্রাফিক সার্জেন্ট রেকসোনা খাতুনকে কেএমপি কমিশনারের পক্ষ থেকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) কেএমপির সদর দপ্তরে পুলিশ কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান ভূঞা এ সম্মাননা তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কেএমপি কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান ভূঞা, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) এসএম ফজলুর রহমান, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোল্লা জাহাঙ্গীর হোসেন, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, বিশেষ পুলিশ সুপার (সিটিএসবি) রাশিদা বেগম, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (সদর) মোহাম্মদ এহ্সান শাহ্, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (এফএন্ডবি) শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক বিভাগ) মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম।

এছাড়াও আসামি গ্রেফতারের স্বীকৃতি স্বরূপ খালিশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামাল হোসেন খাঁন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নিমাই চন্দ্র কুন্ডু, এসআই মো. রেজোওয়ান উজ্জামান, এসআই(নি.) পিযূষ দাস, এসআই মো. ফয়জুল ইসলাম, এএসআই মোঃ আনোয়ারুল হক, এএসআই মো. রাসেল খান, এএসআই মো. কামরুজ্জামান, কনস্টেবল মো. আকবর আলী এবং কেএমপির ট্রাফিক বিভাগের টিআই নওসের ওসমান, এটিএসআই মো. হুমায়ন ও কনস্টেবল মো. ওবাইদুল্লাহকে নগদ অর্থ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় খুলনার বয়রা এলাকায় সন্ত্রাসীরা স্থানীয় ওয়ার্ড যুবলীগ নেতাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ককটেল নিক্ষেপ ও গুলি করে মোটরসাইকেলযোগে পালানোর সময় বেতার যন্ত্রের মাধ্যমে কর্তব্যরত পুলিশ সার্জেন্ট রেকসোনা বার্তা পাঠান। গতিরোধ করার জন্য অনুরোধ জানালে ডিউটিরত ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের সহায়তায় খালিশপুর থানার ওসিসহ তার টিমের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ২টি পিস্তল, ১১ রাউন্ড গুলি এবং একটি ককটেলসহ এক আসামিকে গ্রেফতার করে।

আলমগীর হান্নান/এফএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]