ব্রিজ ভেঙে ট্রাকসহ খননযন্ত্র খালে, দুর্ভোগে ১২ হাজার মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৫:১৬ পিএম, ২৮ জানুয়ারি ২০২২
ব্রিজ ভাঙা অবস্থায় পানিতে ট্রাকসহ খননযন্ত্র

বরিশালের উজিরপুরে আয়রন ব্রিজ ভেঙে ট্রাকসহ খননযন্ত্র (ভেকু) খালে পড়ে গেছে। এ ঘটনায় হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেল ৫টা পর্যন্ত ট্রাকটি উদ্ধার হয়নি। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন খালের দুই পাশের প্রায় ১২ হাজার মানুষ।

স্থানীয়রা জানান, বড়াকোঠা ইউনিয়নের ডাবেরকুল স্কুল সংলগ্ন ডাবেরকুল খালে বহু বছর আগে আয়রন ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছিল। তবে ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণ বা সংস্কার হয়নি। আয়রন ব্রিজটি দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচল নিষেধ ছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষের নির্দেশ তোয়াক্কা না করে সেতুর ওপর দিয়ে অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই যানবাহন চলাচল করে আসছিল। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার দিনগত রাতের যেকোনো সময় খননযন্ত্র নিয়ে একটি ট্রাক পার হতে গেলে আয়রন ব্রিজটি ভেঙে খালে পড়ে যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ৫০ মিটারের আয়রন ব্রিজ দিয়ে প্রতিদিন ১০-১২ হাজার মানুষ, আলফা, ইজিবাইক, প্রাইভেটকারসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করতো। ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় লস্কেরপুর, গাজিরপাড়, নরসিংহা, খাটিয়ালপাড়া, বড়াকোঠা, দক্ষিণ ধামুরাসহ ৮-১০টি গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

acc1

উজিরপুরের বড়াকোঠা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শহীদুল ইসলাম মৃধা জাগো নিউজকে বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সকালে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় লোকজনদের চলাচলের জন্য ভেঙে পড়া ব্রিজের পাশ দিয়ে বাঁশের একটি সাঁকো তৈরি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আয়রন ব্রিজের স্থলে আগেই গার্ডার ব্রিজ নির্মাণের জন্য মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলে এখানকার হাজারো মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণতি বিশ্বাস জাগো নিউজকে বলেন, খালে পড়ে যাওয়া ট্রাক ও খননযন্ত্র উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কাজ করছেন। পাশাপাশি দ্রুত যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

সাইফ আমীন/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]