কিশোরীকে ভারতে নিয়ে যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রি, স্বামী-স্ত্রীর ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ১২:৪৮ পিএম, ১৮ মে ২০২২
প্রতীকী ছবি

খুলনার এক কিশোরীকে ভারতে পাচার ও যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রির অপরাধে স্বামী-স্ত্রীর মৃত‌্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১৮ মে) খুলনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক আব্দুস ছালাম খান এ রায় ঘোষণা করেন। মামলার রায়ে অপর তিন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেন আদালত। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদ আহমেদ।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. শাহীন শেখ ও তার স্ত্রী আসমা বেগম ওরফে সালমা। তারা দুজনেই পলাতক রয়েছেন।

মানবপাচার মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১৯ অক্টোবর ভালো বেতনে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ভারতে নিয়ে যান শাহীন ও তার স্ত্রী আসমা। সেখানে তাকে যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রি করে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে কিশোরী ফিরে এসে স্বামী-স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আলমগীর হান্নান/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]