খুলনায় স্কুলছাত্র হত্যায় ১৭ আসামির সাত বছর করে কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০১:৫১ পিএম, ২৩ মে ২০২২

খুলনায় স্কুলছাত্র ফাহমিদ তানভীর রাজিন হত্যায় ১৭ আসামিকে সাত বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। যে সব আসামির বয়স ১৮ বছরের নিচে তাদের সংশোধনাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ মে) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ৩ এর বিচারক মো. আব্দুস ছালাম খান এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা আসামিরা হচ্ছেন- মঞ্জুরুল ইসলাম ওরফে সাব্বির হাওলাদার (১৬), বিএম মাজিব হাসান রয়েল (১২), শাহারিয়ার জামান তুর্য (১৭), রিয়ান শেখ ওরফে রেফাত (১২), ফাহিম ইসলাম মনি (১৪), সানি ইসলাম ওরফে আপন (১৩), জিসান খান (১৫), তারিন হাসান ওরফে রিজভী (১৩), শাকিব খান শিমুল (১৭), অন্তর কুসার দাস (১৫), মো. হাকিম (১৭), সৈকত (১৬), শেখ সাকিব (১৭), আসিফ প্রান্ত আলিফ (১৫), শেখ তামিম (১৬), সাকরান সালেহ ওরফে মিতুল (১২) ও মোস্তফিজুর রহমান নাঈম (১৪)।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদ আহমেদ জানান, ২০১৮ সালের ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে কনসার্ট দেখার জন্য খুলনা পাবলিক কলেজে সপ্তম শ্রেণির ছাত্র রাজিন। রাতে অনুষ্ঠান স্থলে বসাকে কেন্দ্র করে আসামি তামিমের সঙ্গে তার হাতাহাতি হয়। রাত ৯টার দিকে রাজিনকে অনুষ্ঠানের মঞ্চের পিছনে নিয়ে চড় থাপ্পড় মারতে থাকে তানিম। একপর্যায়ে সাব্বির বলে আমার কাছে চাকু আছে। অনেকদিন চাকুটি রক্ত খায় না। মামলার অন্যান্য আসামিরা রাজিনের হাত চেপে ধরে। আর সাব্বির চাকুটি রাজিনের পেটে ঢুকিয়ে দিলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এরপর আসামিরা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রাজিনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এরপর নিহতের বাবা বাদী হয়ে ছয়জন আসামির নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। একই বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি খালিশপুর থানার এসআই মো. মিজানুর রহমান ১৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আলমগীর হান্নান/এসজে/আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]