বিয়ানীবাজার পৌরসভায় দুই মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১০:০৬ পিএম, ২৬ মে ২০২২

সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন দুই মেয়র ও দুজন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) মনোনয়ন প্রত্যাহারকারী দুই মেয়র প্রার্থীর একজন আবু নাসের পিন্টু। বিগত নির্বাচনে তিনি বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিজয়ী প্রার্থীর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। প্রার্থিতা প্রত্যাহারকারী অপর ব্যক্তি হলেন বিয়ানীবাজার সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ।

এছাড়া ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী কবির আহমদ এবং ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুর রউফ মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন।

সন্ধ্যায় জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা ও মৌলভীবাজার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মোট ১২ জন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে দুজন প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন। এখন ভোটের মাঠে ১০ জন প্রার্থী রয়েছেন।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে শুক্রবার (২৭ মে)। আগামী ১৫ জুন ইভিএমের মাধ্যমে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বর্তমানে প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র আব্দুস শুকুর, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুছ টিটু ও বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস ফারুকুল হক, কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম, স্বতন্ত্র প্রার্থী অজি উদ্দিন, আব্দুস সবুর, আহবাব হোসেন সাজু ও প্রভাষক আব্দুস সামাদ আজাদ, সাবেক পৌর প্রশাসক স্বতন্ত্র প্রার্থী তফজ্জুল হোসেন ও জাতীয় পার্টির মনোনীত দলীয় প্রার্থী সুনাম উদ্দিন।

মেয়র প্রার্থী মাসুক আহমদ মনোনয়ন প্রত্যাহার করে বলেন, তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী ফারুকুল হককে সমর্থন জানিয়ে তার মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা বিএনপি নেতা আবু নাসের পিন্টু বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিচ্ছে না। নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার জন্য দলের নির্দেশনা ছিল। দলের নির্দেশনা মেনে আমার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছি।

এদিকে সিলেটের বিয়ানীবাজারসহ দেশের ছয়টি পৌরসভা নির্বাচনে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ভোটগ্রহণের দিন সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌরসভার সব কেন্দ্রে ও কক্ষে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে ভোট মনিটর করা হবে। ভাড়ার ভিত্তিতে সাময়িক সময়ের এসব সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

ছামির মাহমুদ/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]