কাজের জন্য ঢাকায় গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো রুবেল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ২৫ জুন ২০২২
রুবেল

দোকানে কাজ করার জন্য রংপুরের গঙ্গাচড়া থেকে ঢাকায় গিয়েছিল রুবেল (১৪)। কিন্তু সপ্তাহের ব্যবধানে লাশ হয়ে ফিরতে হলো তাকে। শনিবার (২৫ জুন) ছেলের মরদেহ নিয়ে বাড়ি ফেরেন বাবা মফিজুল ইসলাম।

রুবেল উপজেলার আলমবিদিতর ইউনিয়নের উত্তর কিশমত গণেশ গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে। তিন ভাইয়ের মধ্যে মেজো সন্তান রুবেল। রুবেলের বাবা মফিজুল ইসলাম একজন দিনমজুর।

মফিজুল ইসলাম জানান, ওই গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে জামিল মিয়ার গাজীপুর টঙ্গী এলাকায় মুদি দোকান রয়েছে। ১৬ জুন রুবেলকে ওই দোকানে কাজের জন্য নিয়ে যান জামিল।

এরপর গত বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) রাতে ছেলে অসুস্থ জানিয়ে তাকে দেখতে টঙ্গীতে যাওয়ার জন্য ফোন করেন জামিল। ফোন পেয়ে ওই দিন রাতেই টঙ্গী ছুটে যান মফিজুল। সেখানে গিয়ে ঘরের ভেতর ছেলের মরদেহ দেখতে পান। শুক্রবার রাতে ছেলের মরদেহ নিয়ে রওনা দিয়ে শনিবার ভোরে বাড়িতে ফেরেন।

তিনি আরও বলেন, রুবেলের মাথা, হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এ বিষয়ে গঙ্গাচড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম কিবরিয়া বলেন, খবর পেয়ে বাড়ি থেকে মরদেহ নিয়ে এসে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ দায়ের হলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জিতু কবীর/আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]