সবজিতে নাভিশ্বাস, মুরগিতে স্বস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ১২:০০ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২

অডিও শুনুন

হঠাৎ করেই নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে উঠেছে খুলনার সবজি বাজার। দফায় দফায় বাড়ছে সবকিছুর দাম। ৪০ টাকার নিচে মিলছে না কোনো সবজি। সবজির আমদানিও অনেক কমে গেছে বাজারে। বেশিরভাগ ভালো মানের সবজি পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পাইকাররা।

সপ্তাহখানেকের ব্যবধানে সব ধরনের সবজির দাম কেজিপ্রতি বেড়েছে অন্তত পাঁচ থেকে দশ টাকা। দাম বেড়ে যাওয়ায় নাভিশ্বাস উঠেছে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের। তবে মুরগির দাম কেজিতে প্রায় ২৫ টাকা কমে যাওয়ায় একটু হলেও স্বস্তি পাচ্ছেন ক্রেতারা।

শনিবার (০২ জুলাই) নগরীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে প্রতিকেজি কাঁচামরিচ ১২০ টাকা, বেগুন ৬০ থেকে ৮০ টাকা, কাকরোল ৬৫ থেকে ৭০ টাকা, পেঁপে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, উচ্ছে ৮০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, ঝিঙ্গা ৫০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, গাজর ১৫০ টাকা, পেঁয়াজ (দেশি) ৫০ টাকা, আলু ৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতিহালি কাঁচকলা বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকা, কলার মোচা প্রতি পিছ ৬০ টাকা।

Khulna-(2)

টুটপাড়া জোড়কল বাজারের সবজি বিক্রেতা বাদশা, রবিউল ও হোসেন জানান, কয়েক দিন একটু বৃষ্টি হয়েছে। এতে পাইকারি বাজারে সবজি কম আসতে শুরু করেছে।

সবজি কম আসার কারণ হিসেবে পাইকাররা বলছেন, এখন সবজির উৎপাদন অনেক কম। যা কিছু উৎপাদন হচ্ছে তার ভালোটুকু পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে চলে যাচ্ছে ঢাকায়। খুলনার আশপাশের বাজারে যা আসছে তা দ্বিতীয় গ্রেডের মাল বলা চলে।

নগরীর মিস্ত্রীপাড়া বাজারের সবজি বিক্রেতা গোলাম রসুল, হায়দার আলী বলেন, পাইকারি বাজারে সব ধরনের সবজির দাম কেজিপ্রতি ৫ থেকে ৬ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।

Khulna-(2)

জোরাকল বাজারের মুরগি বিক্রেতা আবু, মনির, লিপু বলেন, সামনে কোরবানির ঈদ। তাই চাষিরা যত দ্রুত সম্ভব তাদের ফার্ম খালি করার চেষ্টা করছেন। যে কারণে বাজারে হঠাৎ করেই মুরগির দাম কমে গেছে। বর্তমানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিপ্রতি ১২০ থেকে ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মুরগির দাম কমলেও ডিমের দাম রয়েছে আগের মতই। খুচরা বাজারে এক হালি ডিমের দাম ৪০ থেকে ৪৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আলমগীর হান্নান/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]