যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা, দুই ভাইসহ গ্রেফতার ৩

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৪:৪৬ পিএম, ০৩ জুলাই ২০২২
যুবলীগ নেতা হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার তিনজন

ময়মনসিংহে লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় দুই ভাইসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- মহানগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের গন্দ্রপা এলাকার মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে দেলোয়ার হোসেন দিলীপ (৩৫) ও তার বড় ভাই শহিদুল ইসলাম শহিদ (৪০)। অপরজন একই এলাকার মৃত আমান আলীর ছেলে সাব্বির আহমেদ (৩৪)।

শনিবার (২ জুলাই) রাতে নিহতের ছোট ভাই আবু সায়িদ বাদী হয়ে ১৪ জনের নামে ও ৫/৬ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা করেন। ওই রাতেই গৌরীপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

রোববার কোতোয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুক হোসেন জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গ্রেফতার আসামিদের আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত শুক্রবার জুমার আগে লুডু খেলা নিয়ে পারভেজের চাচাতো ভাই সিদ্দিকুর এবং দিলীপের ভাগনে হিরণের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এরই জেরে সন্ধ্যার দিকে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দিলীপের লোকজন হামলা চালিয়ে যুবলীগ নেতা পারভেজকে গুরুতর আহত করেন। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়

নিহত পারভেজ মিয়া (৩০) নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের গন্দ্রপা এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। তিনি ওই ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদপ্রত্যাশী ছিলেন। এর আগে তিনি ময়মনসিংহ পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগ সভাপতি ছিলেন।

মঞ্জুরুল ইসলাম/এমআরআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]