খুব কম নেতাই বঙ্গবন্ধুর মতো এমন স্মরণীয় হয়ে আছেন: রাসিক মেয়র

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৯:৪৯ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২২

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন মহামানব। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ‘বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন ভাবনা: প্রেক্ষিত অবকাঠামো’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র লিটন বলেন, বাঙালির রয়েছে গৌরবগাঁথা ইতিহাস। অনেক চড়াই-উৎরায় পেরিয়ে আজ বাংলাদেশ নামক ভূখণ্ড পেয়েছি। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বাধীনতা আন্দোলন করে তিনি এক মহান নেতায় পরিণত হয়েছেন। খুব কম নেতাই পৃথিবীর ইতিহাসে এমন স্মরণীয় হয়ে আছেন। তিনি এমন কাজ করতেন যে মানুষের অন্তরে জায়গা করে নিতেন।

মেয়র আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশকে স্বাধীন করার পর প্রথমে ভঙ্গুর দেশকে গড়ে তুলতে ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ, পাঁচটি গ্যাসক্ষেত্র নিজ মালিকানায় ক্রয়, কৃষিক্ষেত্রের উন্নয়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ শুরু করেন। বঙ্গবন্ধুর সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ার সেই স্বপ্ন পূরণে কাজ করছেন তারই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ছেলেবেলায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাসায় দুদিন আমরা দুই ভাই একসঙ্গে থাকার সৌভাগ্য হয়। সেখানে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটানো সুযোগ হয়। আরেকটি স্মৃতি আমাদের ঢাকার বাড়িতে ঈদের দিনের কথা মনে পড়ে। সেদিন বঙ্গবন্ধু তার একান্ত সহকর্মী এ এইচ এম কামারুজ্জামানের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে আসেন। গাড়ি থেকে নেমে হেনা বলে ডাকতে আমার বাবা সিঁড়ি দিয়ে আলিঙ্গন করেন। তখন বঙ্গবন্ধু আমাদের দেখে ডাক দিয়ে বলেন, আয় আমার কাছে। এরপর তিনি আমাকে বুকে জড়িয়ে ধরে আলিঙ্গন করেন। আজও আমার সেই হৃদয়ে কম্পন ধরিয়ে রেখেছে। তার সেই আদর্শ নিয়ে এগিয়ে চলেছি। মানুষ চলে যায় রেখে যায় তার কর্মময় স্মৃতি। বঙ্গবন্ধু চলে গেছেন কিন্তু রেখে গেছেন কীর্তি।

jagonews24

মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন। দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়নে ডেল্টাপ্ল্যান প্রণয়ন করেছেন। সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীর উন্নয়নেও বিশেষ অবদান রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সিটি করপোরেশনের প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। প্রকল্পটির আওতায় নগরীতে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছেন। আপনাদের সবার সহযোগিতায় রাজশাহীকে এগিয়ে নিতে চাই।

রাজশাহী গণপূর্ত জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. মিছবাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য প্রফেসর মু. নূরুল্লাহ, মুখ্য আলোচক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রফেসর মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বক্তব্য দেন।

এছাড়া রাজশাহী গণপূর্তের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ফজলুল হক, বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের জিএম অসীম কুমার তালুকদার, অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার রশীদুল হক, আইইবি চেয়ারম্যান মো. আবুল বাশার, সড়ক ও জনপথ রাজশাহীর অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সাদিকুল ইসলামসহ সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এনায়েত করিম/আরএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।