অধ্যক্ষের কক্ষে সভাপতির তালা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৮:৩৮ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২২

রাজশাহীর পুঠিয়ায় শহীদ নাদের আলী বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির সভাপতির বিরুদ্ধে।

শনিবার (১৩ আগস্ট) জনরোষে ঘনিষ্ঠজনের মাধ্যমে তালা খুলে দেন সভাপতি মাহাবুব আলম বাবু শেখ।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরের সভাপতি ও অধ্যক্ষের দ্বন্দ্বের ফলে এ তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় বলে স্থানীয়রা জানান।

অধ্যক্ষ রুহুল আমিন নান্নু জানান, গত বছরের ১৩ নভেম্বর মাহাবুব আলম বাবু শেখ এ প্রতিষ্ঠানের সভাপতি নিযুক্ত হন। তিনি অষ্টম শ্রেণি পাস হওয়ায় আমি তার সভাপতি নিয়োগ নিয়ে প্রতিবাদ করি। এছাড়াও তিনি প্রতিষ্ঠানের রেজুলেশন বই নিজের কব্জায় নিলে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। পরে আমি আদালতের দ্বারস্থ হই। আদালত আমার মামলাটি খারিজ করায় তিনি শনিবার অবৈধভাবে আমাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করেন। যা সম্পূর্ণ আইন পরিপন্থী। এছাড়াও পরিচালনা কমিটির ১২ সদস্যের মধ্যে আটজন ইতোমধ্যে পদত্যাগ করেছেন।

jagonews24

এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠান সভাপতি মাহাবুব আলম বাবু শেখ বলেন, সভাপতি হওয়ার পর বেশ কয়েকটি মিটিং করি। এছাড়াও সব শিক্ষক-কর্মচারীদের দিয়ে একটি মতবিনিময় সভায় অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া যায়। এছাড়াও স্কুল অ্যান্ড কলেজকে এক করার প্রস্তাব আসলে সেটা রেজুলেশন করা হলে অধ্যক্ষ রেজুলেশন মোতাবেক কাজ না কারায় আমি রেজুলেশন বই নিজের কাছে নিয়ে যাই।

এছাড়াও অধ্যক্ষ আমিসহ তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে একটি মামলা করেন। সেটাও গত সপ্তাহের আদালত খারিজ করে দেন।

অধ্যক্ষের বরখাস্তের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তাকে বরখাস্ত করেছি। ফলে বর্তমানে অধ্যক্ষ প্রতিষ্ঠানে অবৈধভাবে অবস্থান করছেন।

এনায়েত করিম/আরএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।