সিলেটে পাকিস্তানি ব্যাংকে ঝাড়ুতে টাঙানো হলো জাতীয় পতাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৬:১৪ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০২২

জাতীয় শোক দিবসে সিলেটে পাকিস্তানের মালিকানাধীন হাবিব ব্যাংক লিমিটেডে (এইচবিএল) জাতীয় পতাকা অবমাননা করা হয়েছে। সেখানে ঝাড়ুতে টাঙানো হয় জাতীয় পতাকা। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) সকালে ব্যাংকটির সিলেট নগরের জিন্দাবাজার শাখায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন ব্যাংকটির কর্মকর্তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলনের কথা। কিন্তু পাকিস্তানের করাচিভিত্তিক হাবিব ব্যাংক লিমিটেডের সিলেট শাখার একজন নিরাপত্তাকর্মী ঝাড়ুতে জাতীয় পতাকা টাঙান।

একটি ছবিতে দেখা যায়, ব্যাংকের নিরাপত্তাকর্মী ঝাড়ুতে করে জাতীয় পতাকা টাঙাচ্ছেন। বিষয়টি স্থানীয়দের নজরে এলে তাদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। পরে ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। বিষয়টি নজরে এলে ব্যাংক কর্মকর্তারা পতাকাটি ঝাড়ু থেকে সরিয়ে অন্য একটি বাঁশের খুঁটিতে টাঙান।

ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তায় নিয়োজিত প্রহরী কমলেশ দে জানান, ব্যাংকের অন্য নিরাপত্তাকর্মী আফজাল মিয়া পতাকাটি টাঙান।

jagonews24

এ বিষয়ে নিরাপত্তাকর্মী আফজাল মিয়া বলেন, বাঁশ না পেয়ে না বুঝে তিনি ঝাড়ুতে পতাকাটি টাঙিয়েছেন। এজন্য তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে পতাকাটি ঝাড়ু থেকে খুলে ফেলেন প্রহরী কমলেশ দে।

হাবিব ব্যাংক সিলেট শাখার ক্যাশ ইনচার্জ বিদ্যুৎ কুমার বিশ্বাস জাগো নিউজকে বলেন, ‘এই ভুলের কোনো ব্যাখ্যা হয় না। আসলে মারাত্মক ভুলটি একজন বৃদ্ধ নিরাপত্তাকর্মী না বুঝে করেছেন। এজন্য আমরা দুঃখিত। দৃশ্যটি দেখার পরপরই আমরা পতাকা সরিয়ে নিয়েছি এবং সুন্দর একটি খুঁটিতে যথাযথ মর্যাদায় পতাকাটি উত্তোলন করে অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।’

এলিট ফোর্স লিমিটেডের ওই নিরাপত্তাকর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ‘বিষয়টি শোনার পরপরই আমি ম্যাজিস্ট্রেট পাঠিয়েছি। ওখানে গিয়ে দায়িত্বশীল কাউকে পাওয়া যায়নি। ফোনে ব্যাংকের ব্যবস্থাপকের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। কাল তিনি এসে ব্যাখা দেবেন। তার কাছ থেকে শুনে সরকারের কাছে আমরা এ বিষয়ে রিপোর্ট করবো। এ বিষয়ে ব্যাংকটির বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নেবো।’

উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, হাবিব ব্যাংক লিমিটেড (এইচবিএল) পাকিস্তানের করাচিভিত্তিক একটি বহুজাতিক ব্যাংক। ১৫০০ শাখা ও ১০০০টি এটিএম বুথ এবং বহির্বিশ্বে ৫৫টি শাখা নিয়ে এটি পাকিস্তানের বৃহত্তম ব্যাংক।

ছামির মাহমুদ/এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।