বিএনপির গণসমাবেশ

একদিন আগেই সরগরম রাজশাহীর মাদরাসা মাঠ এলাকা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ১২:৫০ পিএম, ০২ ডিসেম্বর ২০২২

রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ আগামীকাল। এর আগে ডাকা হয়েছে পরিবহন ধর্মঘট। এ কারণে সমাবেশকে ঘিরে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে দুদিন আগে থেকেই নেতাকর্মীরা আসতে শুরু করেছেন রাজশাহীতে। এর ফলে মিছিল-স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে রাজশাহীর সমাবেশস্থল, মাদরাসা মাঠ এলাকা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাদরাসা মাঠের পাশের ঈদগাহ মাঠে অবস্থান নেওয়া নেতাকর্মীরা দলে দলে স্লোগান মিছিলে মেতে উঠেছেন।

নাটোর জেলা বিএনপির সদস্য ফরহাদ আলি শাহেদ জাগো নিউজকে বলেন, আমি ৫০ জন কর্মী নিয়ে এসেছি। সমাবেশ সফল করেই এখান থেকে যাবো। আওয়ামী লীগকে এখান থেকে জানান দিতে চাই, বিএনপি এখনো কতটা ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী।

jagonews24

সিরাজগঞ্জ বিএনপির প্রচার সম্পাদক মকবুল জাগো নিউজকে বলেন, পরিবহন ধর্মঘট আমাদের সমাবেশে যোগদানে বাধা দিতে পারেনি। আওয়ামী লীগ সরকার যতই বাড়াবাড়ি করুক, ক্ষমতা এবার ছাড়তেই হবে। আওয়ামী লীগ সরকারের পতনের মাধ্যমে আমাদের কর্মসূচি থামবে।

নিত্যপণ্য ও জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে নেতাকর্মীদের মৃত্যুর প্রতিবাদ এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে দেশের প্রত্যেক বিভাগে গণসমাবেশ করছে বিএনপি। আগামী ১০ ডিসেম্বর সমাবেশ হবে ঢাকায়। ঢাকার বাইরে এটিই শেষ সমাবেশ।

চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর, বরিশাল, ফরিদপুর, সিলেট, কুমিল্লার পরে ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে গণসমাবেশ করবে দলটি। রাজশাহীর মাদরাসা মাঠে সমাবেশের আয়োজন চলছে। তবে পুলিশের দেওয়া অনুমতি অনুযায়ী, বিএনপি নেতাকর্মীরা শনিবারের আগে মাদরাসা মাঠে সমবেত হতে পারবেন না। এ কারণে তারা অবস্থান নিয়েছেন পাশের ঈদগাহ মাঠে।

এটি বিএনপির নবম বিভাগীয় গণসমাবেশ। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মনির হোসেন মাহিন/এমএইচআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।