সিলেটে হাফ ম্যারাথনে অংশ নিলেন ১২০০ দৌড়বিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৭:২৮ পিএম, ০২ ডিসেম্বর ২০২২

সিলেটে পঞ্চমবারের মতো হাফ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে নানা বয়সের দেশি-বিদেশি এক হাজার ২০০ দৌড়বিদ অংশ নেন। শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) ভোরে বিমান বন্দর সড়ক হয়ে সিলেট ২২ টিলা এলাকা প্রদক্ষিণ করেন দৌড়বিদরা।

এবার ম্যারাথনে ইউনেস্কো থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শীতলপাটিকে উপস্থাপন করা হয়। শীতলপাটিতে অংশ নেওয়া দৌড়বিদরা ছবি তুলেন। এ পাটি সম্পর্কে বিদেশি দৌড়বিদদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়।

সিলেট রানার্স কমিউনিটির আয়োজনে হাফ ম্যারাথন শহরের সার্কিট হাউজের সামনে থেকে শুরু হয়ে বন্দর, জিন্দাবাজার, আম্বরখানা, এয়ারপোর্ট রোদের বাইশটিলা গিয়ে ইউটার্ন নিয়ে সিলেট সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠ লাক্কাতুরা সিলেটে এসে শেষ হয়।

আয়োজকরা জানান, দুটি ক্যাটাগরিতে ম্যারাথনে এক হাজার ২০০ দৌড়বিদের অংশ নেয়। ২১.১ কিলোমিটারে ৪০ জন নারী ও ৩০০ জন পুরুষ এবং ১০ কিলোমিটার ক্যাটাগরিতে ৭০ জন নারী ও ৭৯০ জন পুরুষ অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেন, যখন দেখি ৭৫ বছর বয়সের মানুষ দৌড়ান, ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেন তখন অনুপ্রেরণা পাই। সুস্থ মন, সুস্থ দেহ ও সুস্থ জাতি গঠনে খেলাধুলার বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার ফয়সল মাহমুদ, সিলেট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জহুর আহমদ, ইউনিমার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মর্তুজা রহমান, সিলেট রানার্স কমিউনিটির এডমিন মনজুর আহমেদ আরিফ, সৈয়দ ফজলুর রহিম সোহাগ, মো. হাসান আহমেদ, আবু সালেহ, ফয়েজ জামান, মোহাম্মদ মিজান, মো. আলী কামাল সুমন, মাহমুদুর রহমান মিতুল, কামরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজক কমিটির সদস্য ডা. ওরাকাতুল জান্নাত জানান, ইউনেস্কো থেকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সিলেটের শীতলপাটিকে সবার সামনে তুলে ধরা এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। দিনদিন আমাদের এ ঐতিহ্যবাহী শীতলপাটি অবহেলায় হারিয়ে যেতে চলেছে তাই এবার ইউনিমার্ট সিলেট হাফ ম্যারাথনের মাধ্যমে শীতলপাটিকে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি।

ছামির মাহমুদ/আরএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।