৩১ জানুয়ারির পর অ্যাকোর্ড-অ্যালায়েন্স বাংলাদেশে থাকবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪২ পিএম, ৩১ মে ২০১৮

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ৩১ জানুয়ারির পর বাংলাদেশে অ্যাকোর্ড ও অ্যালায়েন্সের কার্যক্রম থাকবে না। একইসঙ্গে তিনি এ খাতের ব্যবসায়ীদের সময় মতো বেতন ও বোনাস দেয়ার আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আসন্ন ঈদুল ফিতর সুষ্ঠুভাবে উদযাপনে তৈরি পোশাক শিল্পখাতের শ্রমিকদের বেতন, বোনাস ও অন্যান্য ভাতাদি সময় মতো পরিশোধের বিষয়ে বিজিএমইএসহ এ খাতের অন্যান্য সংগঠনের সঙ্গে এক পর্যালোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, পৃথিবীর কোথাও অ্যাকোর্ড ও অ্যালায়েন্সের কার্যক্রম নেই। বাংলাদেশেও তাদের প্রয়োজন নেই।

এদিকে বৈঠকে উপস্থিত বিজিএমই সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, জুন মাসের ১০ তারিখের মধ্যেই পোশাক শ্রমিকদের বেতন ও ১৪ তারিখের মধ্যেই সব কারখানায় বোনাস দেয়া হবে। ব্যাংক থেকে বেতন-বোনাসের টাকা তোলার সময় অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে পোশাক মালিকদের পুলিশের সহায়তা নেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

রাস্তার পাশে যেসব কারখানা আছে সেসব কারখানার কারণে ঈদের সময় যেন যানজটের সৃষ্টি না হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

যেসব প্রতিষ্ঠান এখনও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী সংগঠনের সদস্যভুক্ত হয়নি সেগুলোকে সংগঠনভুক্ত করার নির্দেশনা দেন তিনি।

সেবাখাত মিলিয়ে চলতি অর্থবছরে ৪১ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার রফতানির যে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে তা অর্জন করা সম্ভব হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

সভায় এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল। সেফটি ইস্যুতে আমরা অনেক দেশের তুলনায় ভালো।

শ্রমিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা কোনো রকম উসকানি ও বিপথগামীদের ষড়যন্ত্রে পা দেবেন না। বেতন-ভাতা বকেয়া রেখে কেউ ঈদ করতে যায়নি, আগামীতেও যাবে না। শ্রমিকদের বেতন-ভাতা বকেয়া রেখে ঈদ করতে যাব না, এটা আমি এনশিউর করছি।

এমইউএইচ/এনএফ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :