‘পুঁজিবাজারের বর্তমান অবস্থা স্বস্তিদায়ক’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৮ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৮

পুঁজিবাজারের বর্তমান অবস্থা বিনিয়োগকারীদের জন্য অত্যন্ত স্বস্তিদায়ক ও আশাব্যঞ্জক বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কে এ এম মাজেদুর রহমান।

বৃহস্পতিবার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ আয়োজিত দুই দিনব্যাপী (২৯-৩০নভেম্বর) ‘এআইউবি (অওটই) ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন বিজনেস অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট-২০১৮’ শীর্ষক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মাজেদুর রহমান বলেন, দেশের অর্থনীতিতে এখন সুবাতাস বইছে ৷ বিগত বছরগুলোতে ৭ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে বর্তমানে অর্থনীতিতে জিডিপি পরিমাণ ২৫০ মিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে৷ পরবর্তী পাঁচ বছরে বাংলাদেশ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে৷

তিনি বলেন, অতীতের সকল প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বিরূপ পরিবেশ এবং অবকাঠামোগত দুর্বলতা কাটিয়ে নতুন দিনের উন্মেষ ঘটিয়েছে ৷ এখন নতুন প্রজন্মের নেতৃত্ব দেয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে ৷ পুঁজিবাজার জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রভাবশালী মাধ্যম। একটি উন্নত অর্থনীতি হিসেবে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থানকে প্রতিষ্ঠিত করতে বর্তমান পুঁজিবাজারের অবস্থা বিনিয়োগকারীদের জন্য অত্যন্ত স্বস্তিদায়ক ও আশাব্যঞ্জক৷

গত পাঁচ বছরে দেশের পুঁজিবাজারে অনেক ইতিবাচক পরিবর্তন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএসইসি আইএসকোর ‘এ’ ক্যাটাগরি সদস্য হয়েছে ৷ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ইতিমধ্যে অর্জন করেছে ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন্স অফ এক্সচেঞ্জের সদস্যপদ, জাতিসংঘের সাসটেইনেবল স্টক এক্সচেঞ্জ ইনিশিয়েটিভের অংশীদারিত্ব এক্সচেঞ্জ অর্জন এবং সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অব এক্সচেঞ্জের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে ৷

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সঙ্গে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে যুক্ত হয়েছে চীনের শীর্ষস্থানীয় দুই স্টক এক্সচেঞ্জ শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ৷ এতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের অগ্রগতির জন্য বড় ধরনের সুযোগ তৈরি হয়েছে৷ ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন পরবর্তী ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পণ্যের বৈচিত্র্যতা আনয়নে বহুমুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ৷ খুব শিগগিরই পুঁজিবাজারে স্বল্প মূলধনের প্রতিষ্ঠানসমূহের অর্থায়ন ও তালিকাভুক্তির জন্য স্মল ক্যাপিটাল প্লাটফরম চালু হবে ৷

ক্লিয়ারিং ও সেটেলমেন্ট কোম্পানি গঠনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইন/বিধির প্রণয়ন করা হয়েছে ৷ এতে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদে পুঁজিবাজারে নতুন প্রোডাক্ট লেনদেনের পথ সুগম হবে ৷ যা বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্তের সূচনা করবে ৷

এআইইউবির ভাইস চ্যান্সেলর ড. কারমেন জেড. লামাগনার সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা ইউনিভার্সিটির ইনস্টিটিউট অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের পরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার এবং এআইইউবির ফ্যাকাল্টি অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ডিন ড. চার্লিস সি. ভিল্লানুয়েভা প্রমুখ।

এমএএস/এএইচ/জেআইএম