সিম পরিবর্তনে দেয়া হলো কর ছাড়

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৫৯ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০১৯

মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর পরিবর্তন করার সুবিধা বা মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটির (এমএনপি) ক্ষেত্রে বর্তমান অপারেটরের সিম কার্ডের পরিবর্তে নতুন অপারেটরের সিম কার্ড গ্রহণে আরোপিত মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক অব্যাহতি দিয়েছে সরকর। তবে এ সুবিধার জন্য অপারেটরগুলোকে কয়েকটি শর্ত মেনে চলতে হবে।

রোববার (১৩ জানুয়ারি) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি স্বাক্ষরিত এ সংশ্লিষ্ট একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়, এ সুবিধা পেতে কয়েকটি শর্ত মেনে চলতে হবে।

শর্তগুলো হচ্ছে- মোবাইল অপারেটরগণ কর্তৃক প্রতিমাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে পূর্ববর্তী মাসে সিমকার্ডের সর্বমোট স্থিতি, এমএনপি সেবার বিপরীতে উহাদের নেটওয়ার্কে কী পরিমাণ গ্রাহক এসেছে এবং গেছে তার সংখ্যা এবং অব্যাহতিপ্রাপ্ত শুল্ক ও করের পরিমাণ অন্যান্য কারণে সিম কার্ড পরিবর্তন সংক্রান্ত তথ্য ও তৎবাবদ আদায়কৃত শুল্ক ও করের পরিমাণ সংশ্লিষ্ট কমিশনারেট এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে (বিটিআরসি) বাধ্যতামূলকভাবে প্রেরণ করতে হবে।

এমএনপি সার্ভিস প্রক্রিয়াকরণ সংস্থা কর্তৃক অনুরূপভাবে সকল মোবাইল অপারেটরের এমএনপি সেবা প্রদানের বিপরীতে আসা এবং যাওয়া গ্রাহকের নাম, মোবাইল নম্বর, বর্তমান অপারেটর ও পরিবর্তিত অপারেটরসহ আনুষঙ্গিক তথ্যসংশ্লিষ্ট মূসক কমিশনারেট এবং বিটিআরসিতে প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে পূর্ববর্তী মাসের তথ্য প্রেরণ কতে হবে।

এই প্রজ্ঞাপনের অধীন অব্যাহতি বা রেয়াতি সুবিধা ভোগকারী প্রতিষ্ঠান এই প্রজ্ঞাপনে বর্ণিত শর্তাবলি যথাযথভাবে পালন করছে কি না- তা অনুসন্ধানের লক্ষ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড যেকোনো সময় প্রয়োজনীয় আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবে। অনুসন্ধানের প্রেক্ষিতে কোনো শর্ত ভঙ্গ করা হয়েছে মর্মে প্রমাণিত হলে এনবিআর তাৎক্ষণিক সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে প্রদত্ত অব্যাহতি বা রেয়াতি সুবিধা বাতিল করতে পারবে।

বিটিআরসি ও এমএনপি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর দেয়া হিসাব মতে, একজন গ্রাহককে অপারেটর বদলের জন্য সর্বোচ্চ ১৫৮ টাকা পর্যন্ত ব্যয় করতে হয়। তবে এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের 'সিম পরিবর্তন করের' বিষয়টিও রয়েছে যার পরিমাণ বর্তমানে সিম প্রতি ১০০ টাকা।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন

এমইউএইচ/বিএ