ডিএসইর ব্লকে বেড়েছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৯ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। গত সপ্তাহের চার কার্যদিবসে ৩২টি প্রতিষ্ঠান ডিএসইর ব্লক মার্কেটের লেনদেনে অংশ নেয়। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর এক কোটি ৫৫ লাখ ৪৪ হাজার ৪৯টি শেয়ার ৪০ কোটি ১৯ লাখ ২১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহের তুলনায় ৪২ লাখ দুই হাজার টাকা বেশি। আগের সপ্তাহে ৩৫টি প্রতিষ্ঠানের তিন কোটি ৬৫ লাখ ৭৯ হাজার ৩৭৮টি শেয়ার ৩৯ কোটি ৭৭ লাখ ১৯ হাজার টাকায় লেনদেন হয়।

ব্লকে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস, সিটি ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, ব্যাংক এশিয়া, সিনোবাংলা, প্রাইম ব্যাংক, ইস্টার্ন হাউজিং, নাভানা সিএনজি, রূপালী ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল টিউবস, গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, ওরিয়ন ইনফিউশন, আইএফআইসি ব্যাংক, রেনেটা, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, সিঙ্গার বিডি, আইবিবিএল মুদারাবা পারপেচ্যুয়াল বন্ড, ওয়াটা কেমিক্যাল, এসকে ট্রিমস, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, ইবনে সিনা, বঙ্গজ, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, জেনেক্স ইনফোসিস, আইটিসি, ফার্মা এইডস, খান ব্রাদার্স এবং আলহাজ টেক্সটাইল।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে গত সপ্তাহে ব্লকে সবচেয়ে বেশি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে বিকন ফার্মাসিউটিক্যালসের। কোম্পানিটির ৯ কোটি ২৬ লাখ ৪৫ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিটি ব্যাংকের সাত কোটি ৫৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সাত কোটি ৫০ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে যমুনা ব্যাংক।

এছাড়া ব্র্যাক ব্যাংকের তিন কোটি ৮১ লাখ ১০ হাজার টাকা, উত্তরা ব্যাংকের দুই কোটি ৮৭ লাখ ১০ হাজার টাকা, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের এক কোটি ৬১ হাজার টাকা, ব্যাংক এশিয়ার এক কোটি ৬০ লাখ ৯৯ হাজার টাকা, সিনোবাংলার এক কোটি ৪৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকা, প্রাইম ব্যাংকের ৮৪ লাখ ১৫ হাজার টাকা, ইস্টার্ন হাউজিংয়ের ৪৯ লাখ ৯৯ হাজার টাকা, নাভানা সিএনজির ৪৯ লাখ ৫৬ হাজার টাকা, রূপালী ইন্স্যুরেন্সের ৪২ লাখ ২২ হাজার টাকা, ন্যাশনাল টিউবসের ৪০ লাখ টাকা, গ্রিন ডেল্টার ৩৩ লাখ ৭২ হাজার টাকা এবং ওরিয়ন ইনফিউশনের ২৬ লাখ ৮০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

বাকি কোম্পানিগুলোর এককভাবে ২০ লাখ টাকার কম লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে- আইএফআইসি ব্যাংকের ১৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা, রেনেটার ১৯ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ১৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা, সিঙ্গার বিডির ১৬ লাখ ৮ হাজার টাকা, আইবিবিএল মুদারাবা পারপেচ্যুয়াল বন্ডের ১৩ লাখ ৩৮ হাজার টাকা, ওয়াটা কেমিক্যালের ১১ লাখ ৬৭ হাজার টাকা, এসকে ট্রিমসের ১১ লাখ ৬০ হাজার টাকা, অ্যাডভেন্ট ফার্মার ১১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা, আনোয়ার গ্যালভানাইজিংয়ের ১০ লাখ ৩৫ হাজার টাকা, ইবনে সিনার আট লাখ ২৫ হাজার টাকা, বঙ্গজের সাত লাখ ৭৫ হাজার টাকা, মুন্নু জুট স্টাফলার্সের সাত লাখ চার হাজার টাকা, জেনেক্স ইনফোসিসের ছয় লাখ ৬০ হাজার টাকা, আইটিসির পাঁচ লাখ ৬১ হাজার টাকা, ফার্মা এইডসের পাঁচ লাখ ১৩ হাজার টাকা, খান ব্রাদার্সের পাঁচ লাখ পাঁচ হাজার টাকা এবং আলহাজ টেক্সটাইলের পাঁচ লাখ চার হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

এমএএস/বিএ/এমকেএইচ