রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ড পেলেন ৩৬ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:০৭ পিএম, ০৭ অক্টোবর ২০১৯

প্রবাসী বাংলাদেশিদের ব্যাংকিং চ্যানেলে বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণের জন্য অনুপ্রাণিত করতে এবং অধিক পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণে উৎসাহিত করতে বাংলাদেশ ব্যাংকের আয়োজনে ২০১৪ সাল থেকে রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ড প্রবর্তন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবার ‘বাংলাদেশ ব্যাংক রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ পেয়েছেন ৩৬ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান।

সোমবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর কাকরাইলস্থ আইডিইবিতে এসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের হতে রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ডের ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল প্রমুখ।

এ বছর সাধারণ পেশাজীবী ক্যাটাগরিতে ১০ জন, বিশেষজ্ঞ পেশাজীবী ৮ জন, ব্যবসায়ী ক্যাটাগরিতে ১০ জন, রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক ৫টি ও অনাবাসী বাংলাদেশি মালিকানাধীন তিনটি একচেঞ্জ হাউজকে ক্রেস্ট ও সনদ দেয়া হয়।

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্য সাধারণ পেশাজীবী ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড পান কুয়েত প্রবাসী জাকির হোসেন, শিকদার বাচ্চু, যুক্তরাজ্যের ডা. আফতাব হোসেন, জার্মানির কামরুজ্জামান, যুক্তরাষ্ট্রের সুকেশ রায়, মালয়েশিয়ার আহমেদ রায়হান সামসী, সিঙ্গাপুরের দেওয়ান মাসুদ কামার, কাতার প্রবাসী ইকবাল হোসেন, নাইজেরিয়ার নওশাদ আহমেদ ও যুক্তরাষ্ট্রের ডা. ইশা খশনু।

বিশেষজ্ঞ পেশাজীবী ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড পান সিঙ্গাপুর প্রবাসী ইমরুল হোসেন ভুইয়া, ওমানের রফিকুল আলম, কানাডার মোস্তফা কামাল, সিঙ্গাপুরের সুভাষ চন্দ্র মজুমদার, কাতারের নির্মল কান্তি ঘোষ, কুয়েতের তৌহিদ আহমেদ, সোমালিয়ার নাসের আহমেদ ও আফগানিস্তানের রেজাউল বারী চৌধুরী।

প্রবাসী ব্যবসায়ী ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড পান সংযুক্ত আরব আমিরাতের মোহাম্মদ ওলিউর রহমান, আবদুল করিম, মো শাজাহান বাবলু, মোহাম্মদ আব্দুন নুর কাউসার, মো এমাদুর রহমান, মাহবুবুল হাদী ফজলে রাব্বী, নুর মোহাম্মদ, সিঙ্গাপুরের আবু তাহের মোহাম্মদ আমানুল্লাহ, যুক্তরাষ্ট্রের মঞ্জুরুল সোহেল আলম।

রেমিট্যান্স আহরণকারী ব্যাংক: ইসলামী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক ও জনতা ব্যাংক এ অ্যাওয়ার্ড পায়।

এছাড়া বাংলাদেশি মালিকানাধীন মানি একচেঞ্জ হাউজ: ন্যাশনাল একচেঞ্জ কোম্পানি, এনইসি মানি ট্রান্সফার লিমিটেড ও প্লাসিড এনকে কর্পোরেশনকে অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়।

এমইউএইচ/এমআরএম