মুনাফার ভাগ দেবে না নূরানী ডাইং

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৩ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

মোটা অঙ্কের মুনাফা করলেও তার কোনো ভাগ বিনিয়োগকারীদের দিতে চায় না পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নূরানী ডাইংয়ের পরিচালনা পর্ষদ। ২০১৮-১৯ হিসাব বছরের জন্য প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদ লভ্যাংশ হিসেবে শুধু বোনাস শেয়ার দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত বস্ত্রখাতের কোম্পানিটির পর্ষদ সভায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে শেয়ারহোল্ডারদের শুধু ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

শেয়ারহোল্ডারদের নগদ লভ্যাংশ না দিলেও হিসাব বছরটিতে কোম্পানিটি মোটা অঙ্কের মুনাফা করেছে বলে আর্থিক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে ১ টাকা ১৮ পয়সা হারে প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা হয়েছে ১১ কোটি ৯৫ লাখ টাকা।

শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, কোম্পানিটি যে পরিমাণে মুনাফা করেছে তাতে শেয়ারহোল্ডাদের নগদ ১০ শতাংশ লভ্যাংশ দিতে পারত। কিন্তু শেয়ারহোল্ডারদের মুনাফা থেকে বঞ্চিত করে শুধু শেয়ার ধরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে সামনের বছর কোম্পানিটির শেয়ারের সংখ্যা বাড়বে।

২০১৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানিটি প্রতিটি বছরেই লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডারদের বোনাস শেয়ার দিয়েছে। তালিকাভুক্তির বছরে প্রতিষ্ঠানটি থেকে বিনিয়োগকারীরা ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসেবে পেয়েছিল। পরের হিসাব বছরে ১১ শতাংশ বোনাস শেয়ারের পাশাপাশি ২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল কোম্পানিটি। তবে সদ্য সমাপ্ত হিসাব বছরে লভ্যাংশ হিসেবে আবারও শুধু বোনাস শেয়ার দিল প্রতিষ্ঠানটি।

নিয়মিত বোনাস শেয়ার দেয়া এই কোম্পানিটির বর্তমান শেয়ার সংখ্যা ১০ কোটি ১৩ লাখ ৪৩ হাজার। এর মধ্যে ৩০ দশমিক ৯৩ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। তবে এক বছর আগে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে ৩৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ শেয়ার ছিল। অর্থাৎ শেষ বছরে প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোক্তা ও পরিচালকরা প্রায় ৭ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন।

এদিকে ২০১৮-১৯ হিসাব বছরের ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডাদের অনুমোদন নেয়ার জন্য প্রতিষ্ঠানটি আগামী ১৯ ডিসেম্বর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ডেকেছে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ নভেম্বর।

এমএএস/এসআর/এমকেএইচ