শ্রমিকদের কল্যাণে সবকিছু করার প্রতিশ্রুতি শ্রম প্রতিমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৯

শেখ হাসিনার শ্রমিকবান্ধব সরকার শ্রমিকদের কল্যাণ এবং তাদের জীবনমান উন্নয়নে সবকিছু করবে বলে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) মহাপরিচালককে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

সোমবার (৪ নভেম্বর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় আইএলও সদর দফতরে সংস্থাটির মহাপরিচালক গাই রাইডারের সঙ্গে বৈঠককালে এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। মঙ্গলবার মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বৈঠকে শ্রম পরিস্থিতি এবং শ্রমিকদের কল্যাণের বিষয়ে নেয়া বাংলাদেশের অগ্রগতি তুলে ধরে মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, বাংলাদেশ শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ বছরের নিচে কোনো শিশুকে যেকোনো ধরনের কর্মে নিয়োগ দেয়া যাবে না। শেখ হাসিনার সরকার আইএলও কনভেনশন-১৩৮ অনুসরণ করে গত বছর শ্রম আইনে সংশোধনী এনেছে। আগে শিশুদের হালকা শ্রমে নিযুক্তির সর্বনিম্ন বয়স ছিল ১২ বছর, এখন তা ১৪ বছর করা হয়েছে।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী ট্রেড ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন সহজীকরণ, ডিজিটালাইজেশন এবং ৩০ থেকে ২০ শতাংশ শ্রমিকের সমর্থনে ট্রেড ইউনিয়নের রেজিস্ট্রেশন সুবিধার কথা আবারও তুলে ধরেন।

Monnujan-1.jpg

তিনি আইএলও মহাপরিচালককে বলেন, ইপিজেড শ্রম আইন সংশোধনের ফলে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের পরিদর্শকরা ইপিজেড এলাকায় শ্রম পরিদর্শন করতে পারছেন। শেখ হাসিনার শ্রমিকবান্ধব সরকার শ্রমিকদের কল্যাণ এবং তাদের জীবনমান উন্নয়নে সবকিছু করবে বলে আইএলও মহাপরিচালককে প্রতিশ্রুতি দেন প্রতিমন্ত্রী।

আইএলও মহাপরিচালক শ্রম পরিস্থিতির অগ্রগতিতে বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। সুসম্পর্কের কথা উল্লেখ করে আইএলও সব সময় বাংলাদেশের পাশে থেকে কাজ করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

বৈঠককালে শ্রম প্রতিমন্ত্রী আন্তর্জাতিক এ গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার প্রতিষ্ঠার শতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মহাপরিচালকের হাতে শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন।

জেনেভায় বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত এম শামীম আহসান, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব কে এম আলী আজম, অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের মহাপরিদর্শক শিবনাথ রায়, শ্রম অধিদফতরের মহাপরিচালক একে এম মিজানুর রহমান এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক নজরুল ইসলাম বৈঠকে অংশ নেন।

এমইউএইচ/এমএসএইচ/এমএস