মেলায় ৩৬০ কোটি টাকার কর দিল ১৮ ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৫ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৯

সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় ১৮টি বাণিজ্যিক ব্যাংক ৩৬০ কোটি টাকা কর দিয়েছে। বুধবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে ‘আমরা স্বাবলম্বী হব সকলে কর দেব’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার কাছে ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি), সিইও এবং প্রতিনিধিরা চেক প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী আবুল হোসেন, মেলার কমিটির প্রধান ও এনবিআরের সদস্য কালি পদ হালদারসহ এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান-আইএফসি ব্যাংক আয়কর দেয় ৫০ কোটি টাকা। ট্রাস্ট ব্যাংক ২৫ কোটি, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ১০ কোটি, মধুমতি ১০ কোটি, যমুনা ব্যাংক ১০ কোটি, ন্যাশনাল ব্যাংক ২০ কোটি, ডাচবাংলা ব্যাংক ২০ কোটি, প্রাইম ব্যাংক ১০ কোটি, সিটি ব্যাংক ২০ কোটি টাকা, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ১০ কোটি, ঢাকা ব্যাংক ১৫ কোটি, আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক ১০ কোটি, ব্যাংক এশিয়া ১০ কোটি, পূবালী ব্যাংক ১০ কোটি, উত্তরা ব্যাংক, ১০ কোটি, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ১০ কোটি, ব্র্যাক ব্যাংক ১০ কোটি টাকার চেক প্রদান করে।

এর আগে মেলার প্রথমদিনে ১০০ কোটি টাকা আয়কর দিয়েছিল বেসরকারি ইসলামী ব্যাংক। সবমিলিয়ে ১৮ ব্যাংক মেলায় ৩৬০ কোটি টাকা দিয়েছে।

Bank-(4).jpg

কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে মেলায় সাধারণ বিমা কর্পোরেশন ১০ কোটি, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ২০ কোটি, বেক্সিমকো লিমিটেড দুই কোটি এবং হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস এক কোটি টাকা কর দিয়েছে। মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন মেলায় আয়কর দিয়েছে ১৫০ কোটি এবং বৃটিশ আমেরিকান টোবাকো কর দিয়েছে ৫০ কোটি টাকা। সবমিলিয়ে ২৪টি ব্যাংক বীমা ও কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান মেলায় কর দিয়েছে ৫৯৩ কোটি টাকা।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘আয়কর মেলায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে করদাতারা কর জমা দিচ্ছেন। আয়কর মেলাকে তারা নির্ভরযোগ্য বলে মনে করেন। আমরা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, মেলার মতো কর অঞ্চলেও নির্ভরযোগ্য ও বিশ্বস্ততার সঙ্গে কর দিতে পারবেন। কোনো প্রকার হয়রানি হবে না। যদি কেউ হয়রানি করতে চায়, তবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেব।’

৩০ নভেম্বরের মধ্যে রিটার্ন দাখিলের অনুরোধ জানিয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, নির্ধারিত সময়ে আয়করের রিটার্ন না দিলে পরবর্তীতে জরিমানা দিতে হবে।

মেলায় আয়কর দাতাদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, মেলায় যেসব কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান আয়কর দিয়েছে তাদের করের পরিমাণ আরও বেশি। কিন্ত অতি অল্প সময়ের মধ্যে আমাদের ডাকে সাড়া দিয়ে তারা কর অংশ জমা দিয়েছে। এজন্য আমরা তাদের স্বগত জানাই। আগামীতেও তারা এ সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন এনবিআর চেয়ারম্যান।

Bank-(3).jpg

‘সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’ এ স্লোগান এবং ‘কর প্রদানে স্বতঃস্ফূত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রূপকল্প বাস্তবায়ন’ - এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গত বৃহস্পতিবার সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হয়। মেলার শেষদিন আজ বুধবার। মেলা চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, মেলার ষষ্ঠদিন মঙ্গলবার আয়কর সংগ্রহ হয় ৩৫৭ কোটি ৭৯ লাখ ৫৫ হাজার ৭৩৪ টাকা। এদিন মেলা প্রাঙ্গণ থেকে সেবা নেন দুই লাখ ৫২ হাজার ৮১৫ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেন এক লাখ ১৯ হাজার ১৪৫ জন। আর পাঁচ হাজার ৩২৫ জন নতুন ই-টিআইএন নিবন্ধন করেন।

এর মাধ্যমে মেলার প্রথম ছয়দিনে আয়কর আদায় হয়েছে দুই হাজার ১৬ কোটি ৪৫ লাখ ২১ হাজার ১২০ টাকা। মেলা প্রাঙ্গণ থেকে এই ছয় দিনে সেবা নেন ১৫ লাখ ১২ হাজার ৫৯২ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেছেন পাঁচ লাখ ৩৯ হাজার ৯১০ জন। আর ২৬ হাজার ৮৩১ জন নতুন ই-টিআইন নিবন্ধন করেছেন।

এসআই/এসআর/এমএস