বিদেশিরা বিনিয়োগ প্রত্যাহার করছে না, জানাল মার্চেন্ট ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৪ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশের পুঁজিবাজার থেকে বিদেশিরা বিনিয়োগ প্রত্যাহার করছে না বলে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) জানিয়েছে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ)।

বিএমবিএর পক্ষ থেকে বিএসইসিকে জানানো হয়েছে, বিদেশিরা শেয়ারবাজার থেকে বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন এ জাতীয় তথ্য সঠিক না। বরং বর্তমান অবস্থায় শেয়ারবাজারে বিদেশিদের বিনিয়োগ বাড়বে।

বুধবার বিএসইসির কার্যালয়ে এক জরুরি সভায় এ কথা জানায় বিএমবিএ। বিএসইসির কমিশনার স্বপন কুমার বালার সভাপতিত্বে সভায় ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন (ডিবিএ) ও শীর্ষ ব্রোকারেজ হাউসের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

সভা শেষে বিএমবিএ’র সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ মতিন বলেন, শেয়ারবাজারের চলমান অবস্থা নিয়ে কমিশন আজকে জরুরি বৈঠক ডেকেছিল। তারা আমাদের কাছে বিদেশিরা বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নিচ্ছে এমন খবরের বিষয়ে জানতে চান। এ খবর সঠিক নয় বলে কমিশনকে অবহিত করেছেন বড় হাউজের প্রতিনিধিরা।

বৈঠকে আগামী ২০ জানুয়ারি অর্থ মন্ত্রালয়ের ডাকা জরুরি সভার বিষয়েও কথা হয়েছে বলে জানান রিয়াদ মতিন। তিনি বলেন, সরকার খুবই আন্তরিক। কমিশন আমাদের ২০ তারিখের বৈঠকে শেয়ারবাজারের জন্য করণীয় ও কার্যকরি প্রস্তাব রাখতে বলেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা ৭ হাজার ৮৪৫ কোটি ৪৫ লাখ টাকার লেনদেন করে, যা মোট লেনদেনের ৬ দশমিক ৮৯ শতাংশ। বছরটিতে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ক্রয়ের পরিমাণ ছিল ৩ হাজার ৬৭৮ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। এর বিপরীতে বিক্রি ছিল ৪ হাজার ১৬৬ কোটি ৮১ লাখ টাকা। অপরদিকে ২০১৮ সালে বিদেশিদের লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৯ হাজার ৫৮৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা। এর মধ্যে ক্রয় ছিল ৪ হাজার ৪৯৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা এবং বিক্রয় ছিল ৫ হাজার ৮৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। চলতি বছরেও বিদেশিদের শেয়ার বিক্রির চাপ অব্যাহত রয়েছে বলে শেয়ারবাজারে গুঞ্জন রয়েছে।

এমএএস/জেডএ/পিআর