বাণিজ্য মেলায় ১২০০ টাকায় ব্লেজার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ পিএম, ২৮ জানুয়ারি ২০২০

দাম এতটাই বেশি ছিল যে একটা সময় ব্লেজার কেনার কথা উচ্চবিত্ত ছাড়া সাধারণ মানুষ ভাবতেই পারত না। আকাশচুম্বী দাম হওয়ায় এ পোশাকটি উচ্চবিত্তদের জন্যই তৈরি করা হতো। কিন্তু বর্তমানে দাম অনেক কমে যাওয়ায় সব শ্রেণির মানুষের পোশাক হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে ব্লেজার।

দাম এতটাই কমেছে যে, বাণিজ্য মেলায় ব্লেজারের স্টলের বিক্রয় প্রতিনিধিরা ক্রেতা আকৃষ্ট করতে জোরে জোরে হাঁক ডেকে বলছেন ‘জীবনের সেরা অফার লুঙ্গির দামে ব্লেজার’। মেলার সময় শেষ হয়ে আসছে তাই আখেরি অফার দিয়ে যেকোনো ধরনের ব্লেজার বিক্রি করছেন ১ হাজার ২০০ টাকায়। গতকাল এসব ব্লেজার বিক্রি করেছিলেন ১ হাজার ৩০০ টাকায় এমনটাই দাবি তাদের।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে মাসব্যাপী ২৫তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাণিজ্য মেলার প্রিমিয়াম স্টল নং ৫২-তে বিল্লাল এন্টারপ্রাইজের ব্লেজারের স্টল। এ স্টলের সামনে বিক্রয় প্রতিনিধি আল-আমিন জোরে জোরে হাঁক ডেকে বলছেন ‘জীবনের সেরা অফার লুঙ্গির দামে ব্লেজার’। ভালোমানের ব্লেজার কম দামে কিনতে আমাদের দোকানে আসুন। যেকোনো ব্লেজারের দাম মাত্র ১ হাজার ২০০ টাকা।

Mela-2.jpg

এই স্টলের ইনচার্জ রিজওয়ান জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা মেলায় সেল করি বেশি, লাভ করি কম। তাই কম দামে ব্লেজার বিক্রি করতে পারি। গতকাল পর্যন্ত এসব ব্লেজার বিক্রি করেছি ১ হাজার ৩০০ টাকায়। এখন মেলা শেষ পর্যায়ে চলে এসেছে তাই বিক্রি করছি ১ হাজার ২০০ টাকায়। ঘরে মাল রেখে লাভ নেই। তাই কম দামেই বিক্রি করতে শুরু করেছি।’

তিনি আরও বলেন, ছোটদের ব্লেজার বিক্রি করছি ১ হাজার টাকায়। একই সঙ্গে বড়দের কটি ৮০০ থেকে ১ হাজার টাকায় বিক্রি করছি।

ওই স্টল থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা ব্লেজার কিনছেন শফিউল নামের এক ক্রেতা। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘তিন হাজার টাকা দিয়ে কাপড় কিনে আরও ৩ হাজার টাকার ব্লেজার বানানো ক্ষমতা আমাদের নেই। তাই মান যেমনি হোক ১ হাজার ২০০ টাকা ব্লেজার পেলাম কিনে নিলাম।’

মেলার একই সারির প্রিমিয়াম স্টল নং ৩৯-এ আসলাম এন্টারপ্রাইজও সব ধরনের ব্লেজার ১ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি করেছে। তবে প্রিমিয়াম স্টল নং ৪৭ এ আলিফ এন্টারপ্রাইজ আজ ব্লেজার বিক্রি করেছে ১ হাজার ৩০০ টাকায়।

১ হাজার ২০০ টাকায় ব্লেজার পাওয়া গেলেও এ মেলায়ই কিছু ব্র্যান্ডের ব্লেজার বিক্রি হচ্ছে ৪ হাজার ৫০০ টাকায়। যেমন- স্যাভিলি রো কোম্পানির ব্লেজার বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৮০০ থেকে ৪ হাজার ৫০০ টাকায়। ফিট এলিগ্যান্স ব্লেজার বিক্রি করছে ২ হাজার ৮০০ টাকায়। ব্লেজার শপ ব্লেজার বিক্রি করছে ১ হাজার ৭৫০ টাকা। এছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ১ হাজার ৩০০ থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত দামের ব্লেজার বিক্রি করছে।

Mela-2.jpg

বরাবরের মতো এবারও বছরের প্রথম দিন (১ জানুয়ারি) শুরু হয় বাণিজ্য মেলা। মাসব্যাপী এ বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩১ জানুয়ারি মেলা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মেলার সময় বাড়িয়েছে সরকার।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে। টিকিটের দাম এ বছর প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ৪০ এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা।

এবারের মেলায় স্টল/প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৪৮৩টি। এর মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরির প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ১১২টি, মিনি প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ১২৮টি এবং বিভিন্ন ক্যাটাগরির স্টলের সংখ্যা ২৪৩টি। এর মধ্যে বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৭টি, বিদেশি মিনি প্যাভিলিয়ন ১১টি এবং বিদেশি প্রিমিয়ার স্টলের সংখ্যা ১৭টি।

এবারের মেলায় বাংলাদেশের পাশাপাশি থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, ভুটান, ব্রুনাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইতালি ও তাইওয়ানের প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।

এমইউএইচ/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]