৬১ সংস্থার উদ্বৃত্ত অর্থ নিরূপণে কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪৯ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দেশের ৬১টি স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষ ও স্বশাসিত সংস্থার বিপুল পরিমাণ উদ্বৃত্ত অর্থ (ব্যাংকে থাকা) সরকারি কোষাগারে জমা নিতে সম্প্রতি জাতীয় সংসদে আইন পাস হয়। এবার এসব সংস্থায় কত পরিমাণ অর্থ রয়েছে তা নিরূপণে চার সদস্যে কমিটি গঠন করেছে অর্থ বিভাগ।

রোববার এ কমিটি গঠন করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষ, পাবলিক নন- ফাইন্যানশিয়াল কর্পোরেশনসহ স্ব-শাসিত সংস্থাগুলোর উদ্ধৃত্ত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান আইন, ২০২০ ( ২০২০ সালের ০৪ নং আইন) এর ধারা ৯ এ প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এসব সংস্থার উদ্বৃত্ত অর্থ নিরূপণের লক্ষ্যে কমিটি গঠন করা হলো।’

চার সদস্যদের এ কমিটিতে অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিবকে (ট্রেজারি ও ঋণ ব্যবস্থাপনা) সভাপতি এবং একই বিভাগের উপসচিবকে (নগদ ও প্রচ্ছন্ন দায় ব্যবস্থাপনা অধিশাখা) সদস্য সচিব করা হয়েছে। এ ছাড়া অর্থ বিভাগের যুগ্মসচিব (বাজেট ১), অর্থ বিভাগের মনিটরিং সেলেল অতিরিক্ত মহাপরিচালককে এ কমিটির সদস্য করা হয়েছে।

কমিটির কার্যপরিধিতে বলা হয়েছে, ‘কমিটি আইনের তফসিলে বর্ণিত সংস্থাগুলোর গত ৫ বছরের নিরীক্ষিত হিসাব বিবরণী ও হালনাগাদ ব্যাংক হিসাব বিবরণী এবং সংস্থাভিত্তিক চলমান ও পরবর্তী ৩ বছরের মধ্যে বাস্তবায়নযোগ্য অনুমোদিত উন্নয়ন প্রকল্পের তালিকা সংগ্রহপূর্বক বছরভিত্তিক ব্যয়ের হিসাব পরীক্ষা করবে।’

এ ছাড়া তফসিলভুক্ত সংস্থাগুলোর পেনশন ও ভবিষ্য তহবিলের হিসাব সংগ্রহ করবে; এবং তফসিলভুক্ত সংস্থাগুলোর তহবিলে উদ্বৃত্ত অর্থের হিসাবসহ সংস্থাভিত্তিক তথ্যাদি সংবলিত প্রতিবেদন প্রস্তুত করবে। এরপর কমিটি সংস্থাভিত্তিক প্রতিবেদন অর্থসচিবের কাছে উপস্থাপন করবে।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষ, পাবলিক নন- ফাইন্যানশিয়াল কর্পোরেশনসহ স্ব-শাসিত সংস্থাগুলোর উদ্ধৃত্ত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান আইন জাতীয় সংসদে পাস হয়।

এমইউএইচ/জেডএ/এমএস