একদিনে আদার দাম বাড়ল ১৮ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১৮ পিএম, ২০ মে ২০২০

ঢাকা ও চট্টগ্রামে অভিযানের পর অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়া আদার দাম কিছুটা কমলেও তা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে আবার বাড়ছে আদার দাম। একদিনের ব্যবধানে বুধবার (২০ মে) রাজধানীর খুচরা বাজারে আদার দাম বেড়েছে ১৮ শতাংশ। সরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদশের (টিসিবি) প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

রাজধানীর শাহজাহানপুর, মালিবাগ বাজার, কারওয়ান বাজার, বাদামতলী বাজার, সূত্রাপুর বাজার, শ্যাম বাজার, কচুক্ষেত বাজার, মৌলভী বাজার, মহাখালী বাজার, উত্তরা আজমপুর বাজার, রহমতগঞ্জ বাজার, রামপুরা এবং মীরপুর-১ নম্বর বাজারের পণ্যের দামের তথ্য নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে টিসিবি।

করোনার প্রকোপের মধ্যে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী কারসাজির মাধ্যমে আদার দাম অস্বাভাবিক ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে তোলেন। ১০০ টাকারও কম দামে কিনে আনা আদার দাম দফায় দফায় বাড়িয়ে সাড়ে তিনশ টাকা পর্যন্ত তোলা হয়।

অবস্থা বেগতিক দেখে দাম নিয়ন্ত্রণে ঢাকার পাইকারি বাজার শ্যামবাজার ও মিরপুর শাহ আলী বাজার এবং চট্টগ্রামের পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে অভিযান চালায় সংশ্লিষ্টরা। এতে কয়েক দফা দাম কমে আদার কেজি ১৫০ টাকার নিচে চলে আসে। তবে গত সপ্তাহ থেকে আবার আদার দাম বাড়তে শুরু করেছে। কয়েক দফা দাম বেড়ে এখন খুচরা বাজারে আবার ২০০ টাকা ছাড়িয়ে গেছে আদার কেজি।

টিসিবির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার দেশি ও আমদানি করা উভয় ধরনের আদার দাম বেড়েছে। দুই প্রকার আদার দামই এক লাফে বেড়েছে ১৮ শতাংশ। এরমধ্যে দেশি আদার দাম বেড়ে হয়েছে ১৮০ থেকে ২২০ টাকা, যা মঙ্গলবার ছিল ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা। এ হিসাবে একদিনে দেশি আদার দাম কেজিতে ৪০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

অপরদিকে আমদানি করা আদার দাম বেড়ে হয়েছে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা, যা আগে ছিল ১৩০ থেকে ১৫০ টকা। এ হিসাবে একদিনে আমদানি করা আদার দাম কেজিতে বেড়েছে ৩০ টাকা পর্যন্ত।

টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, বুধবার আদার সঙ্গে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে আলু। বিপরীতে বড় দানার মসুর ডাল এবং দেশি ও আমদানি করা হলুদের দাম কমেছে।

আলুর দাম চার দশমিক ৪৪ শতাংশ বেড়ে প্রতি কেজি ২২ থেকে ২৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। অপরদিকে বড় দানার মসুর ডালের দাম পাঁচ দশমিক ৫৬ শতাংশ কমে ৮০ থেকে ৯০ টাকা হয়েছে।

এছাড়া দেশি হলুদের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৩০ থেকে ১৫০ টাকা, যা আগে ছিল ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। অর্থাৎ একদিনে দেশি হলুদের দাম কেজিতে কমেছে ৩০ টাকা পর্যন্ত। আর আমদানি করা হলুদের দাম কমে ১৮০ থেকে ২২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে, যা আগে ছিল ১৭০ থেকে ২৫০ টাকা। অর্থাৎ আমদানি করা হলুদের দামও কেজিতে ৩০ টাকা পর্যন্ত কমেছে।

এমএএস/এসআর/জেআইএম