চীন থেকে সাড়ে ৬ লাখের বেশি গাড়ি তুলে নেবে মার্সিডিজ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫৩ এএম, ০৭ জুলাই ২০২০

চীন থেকে সাড়ে ছয় লাখের মতো গাড়ি তুলে নিচ্ছে জার্মানির বিলাসবহুল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মার্সিডিজ-বেঞ্জ। চলতি বছরের শেষের দিকে গাড়িগুলো তুলে নেয়া হবে। মূলত তেল লিক হওয়ার কারণে এই গাড়িগুলোকে ফিরিয়ে নেয়া হবে বলে জানিয়েছে চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া।

প্রতিবেদন বলছে, মার্সিডিজের বেশ কিছু মডেলে (বিশেষ করে সি-ক্লাস, ই-ক্লাস, ভি-ক্লাস, জিএলকে-ক্লাস, সিএলএস-ক্লাস, সিএলসি-ক্লাস, জিএলসি এসইউভি, ভিএস২০ ভিটো) এই সমস্যা পাওয়া গিয়েছে।

মার্সিডিজ জানিয়েছে, গাড়ির হাই প্রেসার ফুয়েল পাম্প এবং লো প্রেসার ফুয়েল পাম্পের মধ্যে কোনো সমস্যা তৈরি হয়েছে। আর সেই কারণে লো প্রেসার ফুয়েল পাম্প ঠিকমতো কাজ করছে না। আর এ কারণেই ফুয়েল পাম্প থেকে তেল লিক হয়ে যাচ্ছে।

চালক কিংবা মালিকের অজান্তেই এই ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। আর এই ঘটনা ঘটছে শীতকালে। ওই সময়ে ইঞ্জিন স্টার্ট করার সময়েই ঘটছে তেল লিক করার মতো ঘটনা। তাই এ সমস্যা সমাধান করতেই গাড়িগুলো ফিরিয়ে নিচ্ছে গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

সিনহুয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের বেশিরভাগ গাড়ি তৈরি হয়েছে বেইজিং বেঞ্জ অটোমোটিভ কোম্পানিতে। যেখানে প্রায় ১২৫০০ গাড়ি তৈরি করা হয়েছিল। এছাড়া ৩৬ হাজার গাড়ি বাইরে থেকে আমদানি করা হয়। জানা গেছে, যাদের থেকে গাড়িগুলো আমদানি করা হয়েছিল তারা এই সমস্যাজনিত গাড়ির যন্ত্রাংশগুলো বিনামূল্যে পরিবর্তন করে দেবে।

ইতোমধ্যে গত মাসে অর্থাৎ জুনেই বেশ কয়েকটি গাড়ি ফেরত পাঠানো হয়েছে। ওই গাড়িগুলো তৈরি করা হয়েছিল ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৭ সালের জুনের মধ্যে।

সিনহুয়া বলছে, গাড়ির লিকেজ সমস্যার সমাধান করতে চীন থেকে মোট ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৯৫৪টি গাড়ি ফিরিয়ে নেবে মার্সিডিজ। চলতি বছরের ডিসেম্বর থেকে এ ফিরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু হবে।

এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]